সরকারি হাসপাতালে করোনা পরীক্ষার উপর ফি আরোপের সিদ্ধান্ত প্রত্যাহার করুন

2

বাংলাদেশের সমাজতান্ত্রিক দল (মার্কসবাদী)’র সাধারণ সম্পাদক কমরেড মুবিনুল হায়দার চৌধুরী আজ এক বিবৃতিতে বলেন, “সরকারি হাসপাতালে করোনা পরীক্ষার উপর ফি আরোপ করার সিদ্ধান্ত বিস্ময়কর। মহামারির চিকিৎসা কখনও ব্যক্তিগত উদ্যোগে হয় না। করোনা চিকিৎসার সম্পূর্ণ দায়িত্ব রাষ্ট্রের নেয়া উচিত এবং একে কেন্দ্র করে যে কোনো রকম মুনাফা করার পদক্ষেপকে প্রতিহত করা দরকার। অথচ আমরা দেখতে পেলাম সরকার প্রথমে বেসরকারি হাসপাতালগুলোতে উচ্চমূল্যে করোনা পরীক্ষার অনুমতি দিলেন। বেসরকারি হাসপাতালগুলো ৩৫০০ টাকার মতো সরকার ঘোষিত উচ্চমূল্য নিয়েও সন্তুষ্ট থাকতে পারছে না, যে যত পারছে তত নিচ্ছে। সরকার সেটা নিয়ন্ত্রণের কোনো চেষ্টাই করেনি। উপরন্তু এখন সরকারি হাসপাতালে বিনামূল্যে করোনা পরীক্ষার উপরে ফি আরোপ করার সিদ্ধান্ত নিয়েছে।

এমনিতেই অর্থনৈতিক সংকট চরমে। মানুষের ঘরে খাবার নেই। সরকারের অব্যবস্থাপনার কারণে সারাদেশে ছড়িয়ে পড়েছে সংক্রমণ। ফলে দলে দলে মানুষ আক্রান্ত হচ্ছে। এই আক্রান্ত রোগীরা চিকিৎসা পাচ্ছে না। হাসপাতালের দ্বারে দ্বারে ঘুরে অসহায়ভাবে মৃত্যুবরণ করছে। প্রয়োজনের তুলনায় পরীক্ষাও হচ্ছে খুবই অল্প। এরমধ্যে এই সিদ্ধান্ত নেয়া হলো।

সরকার সাধারণ মানুষের চিকিৎসার সকল রকম দায়িত্ব কাঁধ থেকে ঝেরে ফেলে দিয়েছে, এই করোনা পরিস্থিতিকে কেন্দ্র করে পুঁজিপতিদের মুনাফা করার সুযোগ করে দিয়েছে। জনগণের কোনোরকম দায়িত্ব না নিয়ে সরকার একের পর এক গণবিরোধী সিদ্ধান্ত নিয়ে যাচ্ছে।

আমরা অবিলম্বে এই ফি প্রত্যাহার করার দাবি জানাচ্ছি এবং করোনা চিকিৎসার সকল রকম দায়িত্ব সরকারকে নেয়ার দাবি জানাই।”