সকল প্রতবিন্ধকতা জয় করে বঙ্গবন্ধুর সোনার বাংলা প্রতষ্ঠিা করবো–নৌ প্রতিমন্ত্রী

যুগবার্তা ডেস্কঃ বাংলাদেশ আওয়ামী লীগের সাংগঠনিক সম্পাদক ও নৌপরিবহন প্রতমিন্ত্রী খালিদ মাহমুদ চৌধুরী বলেছেন, বঙ্গবন্ধু গণতন্ত্রকে আলিঙ্গন করেছেন, গঠণমূলক বিষয়ে কথা বলছেনে, ন্যায়ের ব্যাপারে কঠোর ছিললনা, তিনি একজন আপোষহীন নেতা ছিলেন। জনগণকে সম্পৃক্ত করে বঙ্গবন্ধু রাজনীতি করছেনে।
তিনি আজ ঢাকায় বিআইডব্লউিটিএ ভবনে মহান স্বাধীনতা ও জাতীয় দিবস উপলক্ষ্যে বিআইডব্লউিটিএ আয়োজিত আলোচনা সভায় এসব কথা বলেন।
বিআইডব্লউিটিএ’র চেয়ারম্যান কমোডর এম মাহবুব-উল ইসলামের সভাপতত্বিে অনুষ্ঠানে অন্যান্যরে মধ্যে বক্তব্য রাখেন নৌপরিবহন সচিব মোঃ আবদুস সামাদ, নৌপরিবহন অধিদপ্তরের মহাপরিচালক কমডোর সৈয়দ আরিফুল ইসলাম, বীর মুক্তিযোদ্ধা সিরাজ উদ্দিন আহমদে ভূইয়া, বিআইডব্লউিটিএ’র সদস্য গোলাম মোস্তফা, নুরুল আলম, দেলোয়ার হোসেন, পরিচচালক আব্দুল আউয়াল ও সিবিএ নেতা আবুল হোসনে।

প্রতমন্ত্রী বলেন, ১৯৪৭ সনে পাকিস্তান স্বাধীনতা লাভের পর পরই বঙ্গবন্ধু বুঝতে পেরেছিলেন যে,ে পাকিস্তানের সাথে থাকলে বাঙ্গালীর অধিকার প্রতিষ্ঠিত হবেনা। তখন থেকেই তাঁর মধ্যে বাঙ্গালীর স্বাধিকারের আন্দোলন দানা বাঁধতে থাক।ে পাকিস্তানীরা এক বছররে মাথায় বঙ্গবন্ধুকে গ্রেফতার কর।ে ১৯৪৮ সনে জলে থাকে মুক্তি পেয়ে বঙ্গবন্ধু একটি শিক্ষিত সমাজ প্রতিষ্ঠায় ছাত্রলীগ প্রতিষ্ঠা করেন।
খালিদ মাহমুদ চৌধুরী বলেন, ৬৬-তে বঙ্গবন্ধু যখন ৬ দফা আন্দোলনের ঘোষণা দেন, তখন আওয়ামী লীগের অনেক নেতাই তাকে ছেড়ে চলে যায়। ৬৬ এর ৬ দফা এক দফা আন্দোলনে রুপ নীতে আড়াই বছর সময় লাগে।ে তখন ছাত্রলীগই সেই আন্দোলনে সক্রিয় ভূমিকা পালন কর।ে বঙ্গবন্ধু স্বাধীকার ও অধিকার আদায়ে নেতৃত্ব দিতে গীয়ে ১৯৭০-এ নির্বাচন একক নেতায় পরিণত হন।