সংবিধানের চার মূলনীতির সাথে যারা ছিলেননা তারাই জাতির পিতাকে হত্যা করেছে

মফিজুর রহমান কবিরঃ ২৪ আগষ্ট সৌদিআরব কেন্দ্রীয় যুবলীগের উদ্যোগে জাতীয় শোক দিবস অনুষ্টিত হয় । সৌদিআরব কেন্দ্রীয় যুবলীগের সভাপতি এম এ জলিলের সভাপতিত্বে অনুষ্ঠান পরিচালনা করেন রিয়াদ কেন্দ্রীয় যুবলীগের সাধারন সম্পাদক আলমগীর মাসুদ । অনুষ্টানে প্রধান অতিথি ছিলেন রিয়াদ মহানগর আওয়ামী পরিষদের সন্মানিত সভাপতি মোহাম্মদ আলী নুর, প্রধান বক্তা ছিলেন রিয়াদ মহানগর আওয়ামী পরিষদ এর সংগ্রামী সাধারন সম্পাদক এম আর মাহাবুব, বিশেষ অতিথি ছিলেন সৌদিআরব বঙ্গবন্ধু পরিষদের সভাপতি ডা:শাহ আলম, সৌদিআরব বঙ্গবন্ধু ফাউন্ডেশনের সাধারন সম্পাদক ও বাংলাদেশ বঙ্গবন্ধু ফাউন্ডেশনের সহ সভাপতি আব্দুস ছালাম ,আওয়ামী পরিষদের সহ সভাপতি আব্দুল গফুর ,কৃষিবিদ শামীম আবেদীন , আওয়ামী পরিষদ নেতা গাজি সাইদ ,বঙ্গবন্ধু ফাউন্ডেশনের নেতা জিয়া উদ্দিন ,জাতীয় শ্রমিকলীগের সভাপতি সোলায়মান বাদশা , মহানগর স্বেচ্ছাসেবকলীগের সভাপতি ইউসুফখান , মুক্তিযুদ্ধ প্রজন্মলীগের সভাপতি এস এম আলমগীর ,কর্ম জীবিলীগের সাধারন সম্পাদক দিপু দেয়ান ,কেন্দ্রীয় যুবলীগের উপদেষ্টা মন্ডলীর সদস্য রিয়াজ উদ্দিন বাবলু ,আবু ইউসুফ,আব্দুল কুদ্দুছ ,আলীনুর ইসলাম রনি যুবনেতা ফজলুর রহমান ।

অনুষ্টানের প্রধান অতিথি ৭৫র ১৫ই আগষ্ট বর্বরচিত হত্যা কান্ডের বর্ণনা দিয়ে বলেন বঙ্গবন্ধু অসাম্প্রদায়িক জাতিভিত্তিক স্বাধীন বাংলাদেশ গড়তে চেয়ে ছিলেন কিন্ত ঘাতকরা তা করতে দিলনা ,জাতির জনককে স্ব-পরিবারে হত্যা করেই ক্ষ্যান্ত হননি লিস্টকরে বুদ্ধিজীবীদের হত্যা করে বাঙ্গালী জাতিকে নেতৃত্বহীন করতে চেয়েছেন ৷

বিশেষ অতিথি ডা:শাহ আলম বলেন সংবিধানের চার মূলনীতির সাথে যারা ছিলেননা যারা চার মূলনীতি গ্রহন করতে পারেননি তারাই জাতির পিতাকে হত্যা করেছে ।জিয়াউর রহমান ক্ষমতায় এসে সাম্প্রদায়িক রাজনীতির জন্ম দিয়েছেন যা সংবিধানের পরি পন্থী ,তিনি বলেন এখন স্বরযন্ত্র হচ্ছে ,সকলকে ঐক্যবদ্ধ থেকেই সরকার ও সংবিধানের ধারাবাহিকতা রক্ষার আহ্ববান জানান ।

প্রধান বক্তা এম আর মাহবুব শহীদদের প্রতি গভীর শ্রদ্ধা জানিয়ে বলেন ষড়যন্ত্র আগেও হয়েছে এখন হচ্ছে ,মুক্তি যুদ্ধের চেতনায় যারা বিশ্বাসী তারা ঐক্যবদ্ধ আমাদের কেউ দাবীয়ে রাখতে পারবেনা ।বর্তমান সরকারের উন্নয়ন মূলক কর্মকান্ড ধারাবাহিক ভাবে প্রচারনা চালিয়ে ,বর্তমান সরকারকে আবারো ক্ষমতায় বসাতে এক জোট কাজ করতে হবে তিনি আহ্ববান জানান ।

বঙ্গবন্ধু ফাউন্ডেশনের সহ সভাপতি আব্দুস ছালাম ১৫ই আগষ্ট হত্যা কান্ডের তীব্র নিন্দা জানিয়ে তিনি বলেন, যদি বঙ্গবন্ধু হত্যার বিচার জিয়াউর রহমান করতেন তাহলে জিউর রহমানকেও হত্যা হতে হতোনা ,খালেদা জিয়া -জিয়াউর রহমানের বিচার চায়নি বরং আওয়ামীলীগই জিয়াউর রহমানের হত্যা কারীদের বিচার চেয়েছিলো কিন্তু খলেদা তাআমলে নেয়নি ।তিনি বি এন পির যুগ্ম সাধারন সম্পাদকের দৃষ্ট আচরনের জন্য অবাঞ্চিত ঘোষণা করেন ।

সভায় অন্যান্য দের আলোচনায় অংশগ্রহন করেন – আনোয়ার হোসেন মুন্না ,মমিনুল হক লেদু,সালাউদ্দিন লাভলু ,সুমন আহম্মেদ খান ,শরিফ মুহাম্মদ ,আতিকুল ইসলাম,মনিরুজ্জামান মনির ,মনির খলাসী ,গিয়াস উদ্দিন মজুমদার ,আলহাজ ফজলুল করিম,কে এম জাকেরুল ইসলাম প্রমুখ ।