শ্রদ্ধা শেষে অজয় রায়ের মরদেহ বারডেমে দান

8

যুগবার্তা ডেস্কঃ মৃত্যুর পরেও প্রমান দিয়ে গেলেন আমি তোমাদেরই লোক। সব সময় তোমাদের কাজে থেকেছি। ব্যক্তিটি আর কেউ নয় অধ্যাপক অজয় রায়। সকলের শ্রদ্ধা শেষে তার ইচ্ছানুযায়ী মরদেহ রাজধানীর বারডেম হাসপাতালে দান করা হয়েছে।
আজ অজয় রায়ের ছোট ছেলে অনুজিৎ রায় বারডেম হাসপাতাল কর্তৃপক্ষের কাছে তার মরদেহ হস্তান্তর করেন।

এর আগে সকালে অজয় রায়ের মরদেহ কেন্দ্রীয়য় শহীদ মিনার রাখা হয়। সেখানে বিভিন্ন রাজনৈতিক, সামাজিক ও সাংস্কৃতিক সংগঠন শেষ শ্রদ্ধা নিবেদন করেন।,
এর আগে সোমবার (৯ ডিসেম্বর) দুপুর ১২টা ৩৫ মিনিটে রাজধানীর বারডেম হাসপাতালে চিকিৎসাধীন অবস্থায় মারা যান অধ্যাপক অজয় রায়।

সোমবার রাতে অজয় রায়ের মরদেহ বারডেম হাসপাতালের হিমাগারে রাখা হয়। সেখান থেকে মঙ্গলবার সকাল সাড়ে দশটায় অজয় রায়ের মরদেহ নিয়ে আসা হয় তার বেইলি রোডস্থ বাসভবনে। সকাল সাড়ে ১১টায় মরদেহ নিয়ে আসা হয় কেন্দ্রীয় শহীদ মিনারে। শুরুতেই সেখানে ঢাকা জেলা প্রশাসনের পক্ষ থেকে তাকে গার্ড অব অনার দেওয়া হয়। এরপর শ্রদ্ধা জানায় সব শ্রেণী-পেশার মানুষ।

শহীদ মিনার থেকে বেলা সাড়ে ১২ টা নাগাদ অজয় রায়ের মরদেহ নিয়ে যাওয়া হয় তার প্রিয় জায়গা ঢাকা বিশ্ববিদ্যালয়ের (ঢাবি) কার্জন হলের পদার্থবিজ্ঞান বিভাগে। পদার্থবিজ্ঞান বিভাগের পক্ষে শ্রদ্ধা নিবেদন শেষে মরদেহ নিয়ে যাওয়া হয় ঢাবির জগন্নাথ হলে। সেখান থেকেই বারডেম হাসপাতালে নিয়ে এসে তার মরদেহ হস্তান্তর করা হয়।

আজ দুপুর ১টা ৫০ মিনিটে বারডেম হাসপাতাল কর্তৃপক্ষের কাছে অজয় রায়ের মরদেহ হস্তান্তর করেন তার ছোট ছেলে অনুজিৎ রায়। বারডেম হাসপাতালের পক্ষে ডায়াবেটিক অ্যাসোসিয়েশন অব বাংলাদেশের পরিচালক মুহাম্মদ আবু তাহের খান তার মরদেহ গ্রহণ করেন।