“শাবিপ্রবি শিক্ষার্থীদের ওপর হামলার প্রতিবাদে বশেমুরবিপ্রবিতে মানববন্ধন”

বশেমুরবিপ্রবি প্রতিনিধি: সিলেটের শাহজালাল বিজ্ঞান ও প্রযুক্তি বিশ্ববিদ্যালয়ের সাধারণ শিক্ষার্থীদের শান্তিপূর্ণ আন্দোলনে পুলিশের লাঠিচার্জ, গুলি বর্ষণ ও টিয়ারশেল নিক্ষেপের ঘটনার তীব্র নিন্দা ও প্রতিবাদ জানিয়েছে গোপালগঞ্জের বঙ্গবন্ধু শেখ মুজিবুর রহমান বিজ্ঞান ও প্রযুক্তি বিশ্ববিদ্যালয়ে সাধারণ শিক্ষার্থীরা।

সোমবার (১৭ জানুয়ারি) দুপুর ১টায় বশেমুরবিপ্রবির আচার্য জগদীশ চন্দ্র বসু্ একাডেমি ভবনের সামনে এ ধরনের ন্যাক্কারজনক ঘটনার প্রতিবাদে তারা মানববন্ধন করেছেন।

এসময় শিক্ষার্থীরা শাবিপ্রবি উপাচার্যের মদদে পুলিশ বাহিনীর আগ্রাসনমূলক কর্মকাণ্ডের নিন্দা জানিয়ে বলেন, গত দুদিন ধরে শাবিপ্রবিতে শিক্ষার্থীরা হলের বিভিন্ন দাবিদাওয়াসহ হল প্রভোস্টের পদত্যাগের দাবিতে আন্দোলন করে আসছে। এই যৌক্তিক অধিকার আদায়ের দাবিতে আন্দোলন শুরুর দিকে বিশ্ববিদ্যালয় প্রশাসনের লালিত পেটোয়া বাহিনী দ্বারা আক্রমণ করেও শিক্ষার্থীদের পিছু হটাতে পারেনি। আন্দোলন চলমান থাকায় গতকাল উপাচার্যের মদদে রাষ্ট্রের জনগণের অর্থে পরিচালিত পুলিশ বাহিনী দ্বারা বিশ্ববিদ্যালয় প্রাঙ্গণে শান্তিপূর্ণ আন্দোলনরত শিক্ষার্থীদের ওপর লাঠিচার্জ, গুলি বর্ষণ ও টিয়ারশেল নিক্ষেপের মত ন্যাক্কারজনক ঘটনা ঘটানো হয়েছে।

শিক্ষার্থীরা আরও বলেন, বিশ্ববিদ্যালয়ের হল প্রভোস্ট, প্রক্টরসহ, উপাচার্য পদ এতটাই লোভনীয় যে, সেই পদ টিকিয়ে রাখবার জন্য বিশ্ববিদ্যালয়ের সন্তানতুল্য শিক্ষার্থীদের ওপর সন্ত্রাসী ও রাষ্ট্রীয় পুলিশ বাহিনীর দ্বারা নিপিড়ন করতে পিছুপা হয়না। গতকাল শাবিপ্রবিতে যে ধরনের ন্যাক্কারজনক ঘটনা ঘটেছে, এ ধরনের ঘটনা আইয়ুব খানের আমলের ছাত্র সংগঠন এনএসএফ এর দ্বারা সংগঠিত নিপীড়নমূলক ঘটনার সামিল। এসময় তারা এ ন্যাক্কারজনক ঘটনার তীব্র নিন্দা ও প্রতিবাদ জানানোর পাশাপাশি এ ঘটনার সাথে জড়িতদের বিরুদ্ধে আইনানুগ ব্যবস্থা গ্রহণের দাবি জানান। অন্যথায় শিক্ষার্থীরা ঐক্যবদ্ধ হয়ে কঠোর আন্দোলনের হুশিয়ারি দেন।

উল্লেখ, রোববার সন্ধ্যায় শাহজালাল বিজ্ঞান ও প্রযুক্তি বিশ্ববিদ্যালয়ে শিক্ষার্থীদের তিন দফা দাবির আন্দোলনে পুলিশ লাঠিচার্য ও গুলি বর্ষণ করে। উপাচার্য অধ্যাপক ফরিদ উদ্দিন আহমেদের মদদেই পুলিশ এ হামলা চালালে উপাচার্য ও প্রক্টরিয়াল বডির পদত্যাগের দাবিতে সোমবার আবার আন্দোলনে নামে কয়েক শ শিক্ষার্থী।