লড়াই-সংগ্রামের জন্য আওয়ামীলীগের জন্ম হয়েছে

মোংলা থেকে মোঃ নূর আলমঃ কোন ক্যান্টনমেন্ট থেকে আওয়ামীলীগের জন্ম হয়নি। মানুষের অধিকার আদায়ের লড়াই-সংগ্রামের জন্য আওয়ামীলীগের জন্ম হয়েছে। মাটি ও মানুষের সাথে আওয়ামীলীগ মিশে আছে। আওয়ামীলীগের সংগঠন শক্তিশালী থাকলে আগামী সংসদ নির্বাচনে জয়ী হ্ওয়া যাবে। মানুষকে ভালোবাসতে হবে। মোংলা-রামপাল জনপদের মানুষ ভোট দিতে আ্ওয়ামীলীগের সাথে কোন বেঈমানী করে নাই। আমরা প্রত্যাশার চেয়ে এই জনপদের মানুষকে বেশী দিয়েছি। ১৬ জুলাই রোববার সকালে মোংলা উপজেলা ও পৌর আ্ওয়ামীলীগের আয়োজনে শেখ আঃ হাই সড়কে অবস্থিত দলীয় কার্য্যালয়ে বর্ধিত সভায় প্রধান অতিথির বক্তৃতায় তালুকদার আব্দুল খালেক এমপি এ কথা বলেন।
রোববার সকাল ১০টায় অনুষ্ঠিত বর্ধিত সভায় সভাপতিত্ব করেন পৌর আ্ওয়ামীলীগের ভারপ্রাপ্ত সভাপতি শেখ আব্দুস সালাম। সভায় বিশেষ অতিথির বক্তব্য রাখেন বাগেরহাট জেলা আ্ওয়ামীলীগের সহ-সভাপতি মোঃ ইদ্রিস আলী ইজারদার, উপজেলা চেয়ারম্যান আবু তাহের হ্ওালাদার, পৌর আওয়ামীলীগের সাধারণ সম্পাদক সেখ আব্দুর রহমান ও উপজেলা আওয়ামীলীগের সাধারণ সম্পাদক মোঃ ইব্রাহিম হোসেন। সভায় অন্যান্যদের মধ্যে বক্তব্য রাখেন ইউপি চেয়ারম্যান মোল্লা মোঃ তারিকুল ইসলাম, নিখিল চন্দ্র রায়, কবির হোসেন, ইস্রাফিল হোসেন হ্ওালাদার, আ্ওয়ামীলীগ নেতা কাজী গোলাম হোসেন বাবলু, মিহির ভান্ডারী, প্রীতিষ মন্ডল, সরদার হুমায়ুন কবির, কামরুল ইসলাম, মোস্তফা ফকির, আফজাল হোসেন শিকারী যুবলীগ নেতা শেখ কামরুজ্জামান জসিম, মোঃ ইকবাল হোসেন, শেখ আল মামুন, ছাত্রলীগ নেতা শিকদার ইয়াছিন আরাফাত, সজীব খান, কে এম এইচ রানা, শাহরুখ বাপী প্রমূখ। সভায় প্রধান অতিথির বক্তৃতায় তালুকদার আব্দুল খালেক এমপি আরো বলেন বিএনপি ক্ষমতায় আসলে দেশ পিছিয়ে যায়। বিএনপি-জামাত মোংলা বন্দরকে ধ্বংস করেছে। খালেদা জিয়া ইপিজেড বন্ধ করে দিয়েছিলো। আ্ওয়ামীলীগের আমলে মোংলা বন্দর এখন ঘুরে দাড়িয়েছে। কর্মচাঞ্চল্য বৃদ্ধি পেয়েছে। ইপিজেডে আগামীতে দেড় লক্ষাধিক শ্রমিক কাজ করবে। বন্দরের জেটি বাড়ানো হচ্ছে এবং রাস্তসলা ছয় লেন করা হচ্ছে। রেল লাইন, বিদ্যুৎ কেন্দ্র, বিমান বন্দর সবকিছুই ২০১৮ সালের মধ্যে দৃশ্যমান হবে আশা করছি। তিনি বলেন উন্নয়নের সংগে টাউট-বাটর্পাও বেড়েছে। শক্ত নেতৃত্ব প্রয়োজন। সুযোগ যখন বাড়বে সমস্য্ওা তখন বেশী হবে। তাই যোগ্য নেতৃত্ব এবং সংগঠন ও সততার কোন বিকল্প নেই। বর্ধিত সভায় ভোটার কার্য্যক্রম হালনাগাদ, জাতীয় শোক দিবসের কর্মসুচি,দলীয় সদস্যপদ নবায়ন ও সাংগঠনিক বিষয়ে আলোচনা এবং কতক সিদ্ধান্ত গ্রহণ করা হয়। বর্ধিত সভা শেষে দুপুরে প্রধান অতিথি তালুকদার আব্দুল খালেক এমপি উপজেলা স্বাস্থ্য কমপ্লেক্সের মিলনায়তনে উপজেলা স্বাস্থ্য ব্যবস্থাপনা কমিটির সভায় যোগদান করেন এবং প্রধান অতিথির বক্তব্য রাখেন। সভায় গত জানুয়ারি-জুন ২০১৭ পর্যন্ত স্বাস্থ্য সেবা পর্যালোচনা, জনবল নিয়োগ, হাসপাতাল ভবন ও আবাসিক ভবন মেরামত, পরিস্কার-পরিচ্ছন্নতা, ওষুধ ও যন্ত্রপাতি নিয়ে আলোচনা এবং সিদ্ধান্ত গ্রহণ করা হয়। উপজেলা স্বাস্থ্য ও পরিবার পরিকল্পনা কর্মকর্তা ডাঃ মোঃ মাহবুবুল আলমের সভাপতিত্বে বক্তব্য রাখেন উপজেলা চেয়ারম্যান আবু তাহের হ্ওালাদার, থানা অফিসার ইনচার্জ শেখ লুৎফর রহমান, সাবেক পৌর চেয়ারম্যান সেখ আব্দুস সালাম, সাংবাদিক মোঃ নূর আলম শেখ, উপজেলা সমাজ সেবা কর্মকর্তা মেহেদী হাসান প্রমূখ।