রিজেন্ট হাসপাতালের চেয়ারম্যান সাহেদসহ পাঁচজনের বিরুদ্ধে দুদকের মামলা

4

ডেস্ক রিপোর্ট: দুর্নীতি দমন কমিশন কর্তৃক গঠিত তিন সদস্যের অনুসন্ধান টিমের অনুসন্ধান শেষে কমিশনের অনুমোদনক্রমে রিজেন্ট হাসপাতাল লিঃ এর চেয়ারম্যান মোহাম্মদ সাহেদসহ পাঁচজনের বিরুদ্ধে আজ মামলা দায়ের কর হয়েছে। মামলার বাদী হয়েছেন দুদক উপপরিচালক মোঃ ফরিদ আহমেদ পাটোয়ারী।
মামলায় (১) মোহাম্মদ সাহেদ চেয়ারম্যান, রিজেন্ট হাসপাতাল লিঃ, ঢাকা, (২) ডা. মোঃ আমিনুল হাসান, প্রাক্তন পরিচালক (হাসপাতাল ও ক্লিনিকসমূহ), স্বাস্থ্য অধিদপ্তর, মহাখালী, ঢাকা, (৩) ডা. মোঃ ইউনুস আলী, উপপরিচালক (হাসপাতাল-১), স্বাস্থ্য অধিদপ্তর, মহাখালী, (৪) ডা. মোঃ শফিউর রহমান ,সহকারী পরিচালক (হাসপাতাল-১), স্বাস্থ্য অধিদপ্তর, মহাখালী, ঢাকা; (৫) ডা. মোঃ দিদারুল ইসলাম গবেষণা কর্মকর্তা, স্বাস্থ্য অধিদপ্তর, মহাখালী, ঢাকা-কে আসামি করা হয়েছে।
মামলার অভিযোগে বলা হয়েছে, আসামিগণ অসৎ উদ্দেশ্যে অন্যায়ভাবে লাভবান হওয়ার অভিপ্রায়ে পরস্পর যোগসাজশে ক্ষমতার অপব্যবহারপূর্বক অপরাধজনক বিশ^াসভঙ্গের মাধ্যমে লাইসেন্স নবায়নবিহীন বন্ধ রিজেন্ট হাসপাতালকে ডেডিকেটেড কোভিড হাসপাতালে রূপান্তর, মেমোরেন্ডাম অব আন্ডারস্ট্যান্ডিং (গড়ট) সম্পাদন ও সরকারি প্রতিষ্ঠান নিপসমের ল্যাবে ৩,৯৩৯ জন কোভিড রোগীর নমুনা বিনামূল্যে পরীক্ষা করে অবৈধ পারিতোষিক বাবদ রোগী প্রতি ৩,৫০০/- (তিন হাজার পাঁচশত) টাকা হিসেবে মোট ১,৩৭,৮৬,৫০০/- (এক কোটি সাইত্রিশ লক্ষ ছিয়াশি হাজার পাঁচশত) টাকা গ্রহণ করে আত্মসাৎ এবং রিজেন্ট হাসপাতাল লিঃ ঢাকার জন্য চিকিৎসক, নার্স, ওয়ার্ডবয় ও অন্যান্য কর্মকর্তাদের খাবার খরচ বরাদ্দের বিষয়ে ১,৯৬,২০,০০০/- (এক কোটি ছিয়ানব্বই লক্ষ বিশ হাজার) টাকার মাসিক চাহিদা তুলে ধরে স্বাস্থ্য ও পরিবার কল্যাণ মন্ত্রণালয়ে প্রেরণ করার উদ্যোগ গ্রহণের অভিযোগ।
ধারা : দণ্ডবিধির ৪০৯/৪২০/১০৯ ধারা তৎসহ দুর্নীতি প্রতিরোধ আইন, ১৯৪৭ এর ৫(২) ধারায় মামলাটি দায়ের করা হয়।