রাহুল গান্ধী আটক

যুগবার্তা ডেস্কঃ ভারতে কংগ্রেস পার্টির ভাইস চেয়্যারম্যান রাহুল গান্ধীকে আটক করেছে পুলিশ। এছাড়া দিল্লির উপ-মুখ্যমন্ত্রী মনীষ সিসোদিয়াকেও আটক করা হয়েছে। বুধবার রাজধানী নয়াদিল্লির রাম মনোহর লোহিয়া হাসপাতাল থেকে তাদের আটক করা হয়।
মঙ্গলবার বিকেলে নয়াদিল্লির যন্তরমন্তরে আত্মহত্যা করেন অবসরপ্রাপ্ত সেনা সদস্য কিষাণ গ্রেওয়াল। তার দেহের পাশ থেকে উদ্ধার হওয়া সুইসাইড নোট থেকে জানা গেছে, তিনি কেন্দ্রীয় সরকারের এক পদ এক পেনশন প্রকল্প চালু হতে দেরি হওয়া এবং এর থেকে হতাশার কারণে আত্মহত্যার পথ বেছে নিয়েছেন।
বুধবার গ্রেওয়ালের পরিবারের সঙ্গে দেখা করতে রাম মনোহর লোহিয়া হাসপাতালে যান রাহুল গান্ধী। কিন্তু পুলিশ তাকে হাসপাতালের ভেতরে প্রবেশে করতে দেয়নি। দিল্লির উপ-মুখ্যমন্ত্রী মনীষ সিসোদিয়া হাসপাতালে গেলে তাকে প্রবেশ করতে বাধা দেয় পুলিশ। পরে রাহুল ও মনীষকে আটকের পর একটি বাসে করে থানায় নিয়ে যাওয়া হয়।
পুলিশের দাবি, রাজনীতিবিদরা হাসপাতাল অবরুদ্ধ করে ফেলেছেন এবং তারা হাসপাতালের কাজকর্ম ব্যাহত করছেন।
এক পুলিশ কর্মকর্তা বলেন, ‘দিল্লি পুলিশ কোনো হাসপাতাল অবরুদ্ধ করা সহ্য করবে না। তারা বক্তৃতা দিচ্ছেন। নেতাদের বোঝা উচিৎ, তারা এখানে রাজনীতি করতে পারেন না।’
আটকের আগে রাহুল হাসপাতালের বাইরে বলেন, ‘এটা বিশেষ ধরণের মানসিকতা। তারা এখন গণতন্ত্রে বিশ্বাস করতে চায় না। এটা ভারতে নতুন তৈরি।’
এদিকে কংগ্রেস রাহুলের এ আটককে ‘অবৈধ’ ও ‘অগণতান্ত্রিক’ বলে আখ্যা দিয়েছে। দলের নেতা আনন্দ শর্মা বলেছেন, ‘এক সেনার পরিবারের সদস্যদের সঙ্গে দেখা করতে হাসপাতালে যেতে কোনো অনুমতির প্রয়োজন হয় না।