রামপাল চুক্তি বাতিলের দাবিতে কাল প্রধানমন্ত্রীর কার্যালয় অভিমুখে পদযাত্রা

যুগবার্তা ডেস্কঃ আজ বিকেলে শাহবাগ জাতীয় জাদুঘরের সামনে তেল-গ্যাস-খনিজ সম্পদ ও বিদ্যুৎ-বন্দর রক্ষা জাতীয় কমিটির বিক্ষোভ সমাবেশ থেকে কালকে প্রধানমন্ত্রী কার্যালয় অভিমুখে পদযাত্রা সফলের আহবান জানিয়েছেন। ঢাকা মহানগরের সমন্বয়ক জাহাঙ্গীর আলম ফজলুর সভাপতিত্বে সমাবেশে নেতৃবৃন্দ অবিলম্বে সুন্দরবনবিনাশী রামপাল কয়লাভিত্তিক বিদ্যুৎকেন্দ্রের চুক্তি বাতিলের দাবি জানিয়ে বলেন, সরকার দেশবাসী ও বিশেষজ্ঞদের মতামত এবং জাতীয় স্বার্থ উপেক্ষা করে বেআইনীভাবে এই চুক্তি সম্পাদন করেছে। আন্দোলনের মধ্য দিয়ে সরকারকে চুক্তি বাতিল করতে বাধ্য করা হবে। সমাবেশ থেকে আগামীকাল ২৮ জুলাই সকাল ১১টায় জাতীয় প্রেসক্লাব চত্বর থেকে প্রধানমন্ত্রীর কার্যালয় অভিমুখে বিক্ষোভ, সারাদেশে জেলা প্রশাসক ও উপজেলা নির্বাহী পরিচালকের কার্যালয়ের সামনে বিক্ষোভ কর্মসূচি সফল করার আহ্বান জানান জাতীয় কমিটির সদস্য সচিব অধ্যাপক আনু মুহাম্মদ।
সমাবেশ ও পদযাত্রার শুরুতে শাহবাগ জাতীয় জাদুঘরের সামনে অধ্যাপক আনু মুহাম্মদ বলেন, মিথ্যাচার, প্রতারণা, দমন-পীড়ন, দুর্নীতি এবং আইনভঙ্গ করে চলছে জাতীয় স্বার্থবিরোধী রামপাল ও ওরিয়ন কয়লাভিত্তিক বিদ্যুৎ প্রকল্প কাজ। চলছে ভূমি ও বনগ্রাসী অপতৎপরতা। প্রতিদিন সুন্দরবনের ভেতর দিয়ে হাজার হাজার টনের কয়লা জাহাজ যাতায়াত করবে। সুন্দরবনের ওপর বছরে ৪৭ লক্ষ টন কয়লা পোড়ানো হবে। ৮ লাখ টন বিষাক্ত ছাইসহ নানা বিষাক্ত দ্রব্য তৈরি হবে। পানি ও বায়ু দূষণ খাদ্যচক্র ও জীবনচক্রকে বিপর্যস্ত করবে। এগুলো চলতে দিলে সুন্দরবন বিনাশ হবে এবং পাঁচ লক্ষাধিক মানুষ জীবিকা হারাবেন, ক্রমে উদ্বাস্তু হবেন আরও অনেক মানুষ। প্রাকৃতিক দুর্যোগে দক্ষিণ পশ্চিমাঞ্চলের কয়েক কোটি মানুষের জীবন ও সম্পদ সম্পূর্ণ অরক্ষিত হয়ে পড়বে। দেশ হারাবে প্রাণপ্রকৃতির অতুলনীয় সম্পদ, অসাধারণ বাসসংস্থান ও বিশ্ব ঐতিহ্য।
পদযাত্রা পূর্বে শাহবাগ জাতীয় জাদুঘরের সামনে ঢাকা মহানগরের সমন্বয়কারী জাহাঙ্গীর আলম ফজলু বলেন, যে উন্নয়ন সুন্দরবন ও নদী ধ্বংস করে এবং বন ও নদীর উপর জীবিকা নির্বাহকারীদের কর্মসংস্থান হারায় সে উন্নয়ন মুক্তিযুদ্ধের চেতনা পরিপন্থি। তিনি অবিলম্বে সুন্দরবনের অতি নিকটে রামপাল কয়লা বিদ্যুৎ প্রকল্প বাতিলের দাবি জানান এবং বিদ্যুৎ সমস্যা সমাধানে জাতীয় কমিটি বিকল্প ৭ দফা বাস্তবায়নের মাধ্যমে বিদ্যুৎ সমস্যা সমাধানের আহ্বান জানান।
আকবর খানের সঞ্চালনায় সমাবেশে বক্তব্য রাখেন সদস্য সচিব আনু মুহাম্মদ, ডা. সাজেদুল হক রুবেল, কিশোর রায়, জুলফিকার আলী, তৈয়মুর আলম খান অপু, পাপ্পু, রজত হুদা, শহিদুল ইসলাম সবুজ সহ প্রমুখ।
সমাবেশ শেষে পদযাত্রাটি শাহবাগ থেকে শুরু হয়ে কাঁটাবন মোড় হয়ে নিউমার্কেট গিয়ে শেষ হয়।