মোহনপুরে সরকারি জমি দখল করে মার্কেট নির্মাণের অভিযোগ

রাজশাহী অফিসঃ জেলার মোহনপুরে সড়কের পাশের সরকারি জায়গা দখল করে দোকান ঘর নির্মাণের অভিযোগ পাওয়া গেছে। উপজেলা সদরের বরইকুড়ি এলাকায় দোকানটি যেখানে নির্মাণ করা হচ্ছে, সেখানেই একটি গার্লস কলেজ রয়েছে। এ পথ দিয়েই যাতায়াত করেন কলেজের শিক্ষক ও শিক্ষার্থীরা।

স্থানীয়রা আশঙ্কা করছেন, কলেজ গেটে দোকান নির্মাণ হলে সেখানে বখাটেদের আড্ডা জমবে। আর যৌন হয়রানির শিকার হবেন ছাত্রীরা। এমন আশঙ্কায় দোকানের নির্মাণ বন্ধে গত কয়েকদিন আগে স্থানীয় উপজেলা নির্বাহী অফিসারের (ইউএনও) কাছে একটি লিখিত অভিযোগ দিয়েছেন।

এলাকার প্রায় অর্ধশত ব্যক্তি স্বাক্ষরিত ওই অভিযোগপত্রে বলা হয়েছে, তানোর-মোহনপুর সড়কের বরইকুড়ি গ্রামে আজাহার আলী নামে এক ব্যক্তি সরকারি জায়গা দখল করে দোকান নির্মাণ করছেন। কিন্তু ওই দোকান ঘরটির পাশেই মোহনপুর গার্লস কলেজের প্রধান ফটক। এ পথ দিয়েই যাতায়াত করেন কলেজের শিক্ষক ও শিক্ষার্থীরা। কিছুদিন আগে আজাহার আলী সেখানে দেকান নির্মাণ শুরু করলে গ্রামবাসী ও কলেজ কর্তৃপক্ষ বাধা দেন। এতে তার নির্মাণ আটকে যায়। কিন্তু কোরবানীর ঈদের ছুটিকে সুযোগ হিসেবে নিয়ে আজাহার আলী আবারও তার নির্মাণ কাজ শুরু করেছেন।

মোহনপুর গার্লস কলেজের অধ্যক্ষ আবদুল মালেক বলেন, দোকানটি নির্মিত হলে কলেজে যাতায়াতের পথে বাধা সৃষ্টি হবে। কলেজের ছাত্রীরাও বখাটেদের উত্যক্তের শিকার হতে পারে। তাই দোকান নির্মাণের কাজ বন্ধ করে দেয়ার জন্য প্রশাসনের কাছে দাবি জানান তিনি।

এ ব্যাপারে জানতে চাইলে আজাহার আলী বলেন, ‘এখন আমি নির্মাণ করবোই। পরে যদি প্রশাসন ভেঙে ফেললে ফেলবে। সেটি তাদের বিষয়।’

উপজেলা নির্বাহী অফিসার (ইউএনও) আলমগীর কবির বলেন, অভিযোগ পেয়েছি। সরেজমিনে তদন্ত করে ব্যবস্থা নেয়া হবে।