মোংলা প্রেসক্লাব সভাপতির নামে দায়েরকৃত মামলা প্রত্যাহারের দাবীতে মানববন্ধন

18

মোঃ নূর আলমঃ মোংলা প্রেসক্লাব সভাপতি ও বন্দর ব্যবহারকারী এইচ এম দুলালের নামে দায়েরকৃত মিথ্যা মামলা প্রত্যাহারের দাবীতে মানববন্ধ অনুষ্ঠিত হয়েছে। আজ সকালে মোংলা পৌর শহরের চৌধুরী মোড়ে অনুষ্ঠিত এ মানববন্ধনে সাংবাদিকসহ বিভিন্ন স্তরের মানুষ অংশ নেন। এসময় দীর্ঘ এ মানববন্ধন বিশাল প্রতিবাদ সমাবেশে রুপ নেয়।
রবিবার সকাল ১১টায় অনুষ্ঠিত মানববন্ধন চলাকালে সমাবেশে সভাপতিত্ব করেন মোংলা প্রেসক্লাবের সাধারণ সম্পাদক মোঃ হাসান গাজী। সমাবেশে বক্তব্য রাখেন মোংলা প্রেসক্লাবের সাবেক সভাপতি এম এ মোতালেব, সাবেক সভাপতি আহসান হাবিব হাসান, মনিরুল হায়দার ইকবাল, সাংবাদিক নেতা সাবেক উপজেলা ভাইস চেয়ারম্যান মোঃ নূর আলম শেখ, প্রভাষক গাজী তানভীর হোসাইন, শ্রমিক নেতা মোঃ জাহাঙ্গীর হোসেন, বাবুল খান, রিকশা শ্রমিক ইউনিয়নের সাধারণ সম্পাদক মোঃ সেলিম প্রমূখ। সমাবেশে বক্তারা এইচ এম দুলালের নামে দায়েরকৃত হয়রানী মূলক মিথ্যা মামলা প্রত্যাহারের দাবী জানান। অনতি বিলম্বে এ মামলা প্রত্যাহারের দাবি জানিয়ে তারা আরও বলেন, অন্যথায় মোংলা বন্দরের বিভিন্ন শ্রেণী-পেশার মানুষের প্রতিবাদ-বিক্ষোভ কর্মসুচি অব্যাহত থাকবে। মানববন্ধনে মোংলা প্রেসক্লাব ও কর্মরত সকল সাংবাদিক, মোংলা বন্দর ওয়াচম্যান ওয়েলফেয়ার সংঘ, বন্দর শ্রমিক কর্মচারী, মোংলা ক্রীড়া পরিষদ, নারী সংগঠন, নৌযান সংগঠন, রিক্সা শ্রমিক ইউনিয়ন, কলেজের শিক্ষক-শিক্ষার্থীসহ বিভিন্ন শ্রেণী পেশার প্রায় দুই সহস্রাধিক মানুষ অংশনেন।

উল্লেখ্য, মোংলা বন্দর জেটি থেকে রামপাল তাপ বিদ্যুৎ কেন্দ্র পর্যন্ত ১৩ কিলোমিটার নৌপথ খনন কাজে তেল সরবরাহ প্রতিষ্ঠান মের্সাস নুরু এন্ড সন্স কোং এর সত্বাধিকারী ও প্রেস ক্লাব সভাপতি এইচ এম দুলাল সংশ্লিষ্ট স্থানীয় এজেন্ট সিগমা শিপিং লাইন্স এর মালিক রফিকুল ইসলামের কাছে তিন কোটি ৬৪ লাখ ৯৩ হাজার টাকা পাওনা হন। সেই পাওনা টাকা চাইতে গেলে রফিকুল ইসলাম বাবলু এইচ এম দুলালের বিরুদ্ধে ষড়যন্ত্র ও হয়রানীমূলক মিথ্যা মামলা দায়ের করে।