মুক্তিযুদ্ধের চেতনার প্রশ্নে কণা পরিমাণ ছাড় দেয়া হবে না–সেলিম

যুগবার্তা ডেস্কঃ গণহত্যা দিবসে বাংলাদেশের কমিউনিস্ট পার্টি (সিপিবি)-র উদ্যোগে রাজধানীতে ‘আলোর মিছিল’ অনুষ্ঠিত হয়েছে। আজ সন্ধ্যা ৬টায় পুরানা পল্টনের মুক্তিভবন থেকে শুরু হওয়া মিছিলটি সোহরাওয়ার্দী উদ্যানের শিখা চিরন্তন-এ গিয়ে শেষ হয়।
আলোর মিছিলপূর্ব সংক্ষিপ্ত সমাবেশে সিপিবির সভাপতি কমরেড মুজাহিদুল ইসলাম সেলিম বলেন, ১৯৭১ সালের ২৫ মার্চ রাতে বাংলাদেশের মানুষের মুক্তিসংগ্রামকে ধ্বংস করতে পাকিস্তানি বর্বর সেনাবাহিনী অর্তকিত হামলা করে ঢাকায় ছাত্র-পুলিশ-বস্তিবাসীসহ অসংখ্য নিরীহ ঘুমন্ত মানুষকে হত্যা করেছিল। তারা মুক্তিযুদ্ধের নয় মাসে ত্রিশ লাখ মানুষকে হত্যা করেছে, দুই লাখ নারীকে নিপীড়ন করেছে, কিন্তু বিজয় ঠেকিয়ে রাখতে পারেনি। আজ ৩০ লাখ মানুষের রক্ত ও দুই লাখ নারীর ত্যাগের বিনিমিয়ে পাওয়া বাংলাদেশ শাসক গোষ্ঠীর লুটপাট আর ভ্রান্তনীতির কারণে জন্মকালীন চেতনা থেকে অনেক দূরে। গণতন্ত্র-ধর্মনিরপেক্ষতা- জাতীয়তাবাদ-সমাজতন্ত্রের অঙ্গীকার থেকে দূরে সরে গেছে শাসকগোষ্ঠী। তিনি বলেন, আজ গণতন্ত্র হরণ করা হয়েছে, সমাজতন্ত্র নির্বাসিত। অন্যদিকে রাষ্ট্রধর্ম সংবিধানে জেকে বসেছে। রাষ্ট্রীয় পর্যায় থেকে সাম্প্রদায়িক গোষ্ঠীর সাথে যোগসাজশে শিক্ষা ব্যবস্থা ও পাঠ্যসূচি সাম্প্রদায়িকীকরণ করা হচ্ছে। সিপিবি সভাপতি বলেন, মুক্তিযুদ্ধের চেতনার প্রশ্নের কণা পরিমাণ ছাড় দেয়া হবে না।
কমরেড সেলিম ভিশন মুক্তিযুদ্ধ ৭১ বাস্তবায়নে ঐক্যবদ্ধ হওয়ার জন্য কমিউনিস্ট ও বামপন্থীদের আহবান জানান। তিনি দেশের বাম-প্রগতিশীল ও গণতান্ত্রিক শক্তিকে ঐক্যবদ্ধ হয়ে দুর্নীতি লুটপাটের বিরুদ্ধে অবস্থান নিয়ে ৭১’র চেতনায় মুক্তিযুদ্ধের বাংলাদেশ প্রতিষ্ঠার জন্য লড়াই করার আহবান জানান।
সিপিবি সাধারণ সম্পাদক মোহম্মদ শাহ আলম আজকে যারা মুক্তিযুদ্ধের চেতনা জলাঞ্জলি দিচ্ছে তাদের ভূমিকা মুক্তিযুদ্ধের চেতনার পরিপন্থী আখ্যায়িত করে তাদের ৭২’র সংবিধানের মূল চেতনায় ফিরে আসার আহবান জানান। তিনি বলেন, শ্রমিক-কৃষক মেহনতি মানুষের অধিকার বাস্তবায়িত না হলে মুক্তিযুদ্ধের বাংলাদেশ প্রতিষ্ঠিত হবে না।
আলোর মিছিলপূর্ব সমাবেশ পরিচালনা করেন প্রেসিডিয়িাম সদস্য আবদুল্লাহ ক্বাফী রতন। উপস্থিত ছিলেন সিপিবি’র উপদেষ্টা মনজুরুল আহসান খান, সহকারী সাধারণ সম্পাদক সাজ্জাদ জহির চন্দন, কোষাধ্যক্ষ মাহবুব আলম, কেন্দ্রীয় কমিটির সদস্য শামছুজ্জামান সেলিম, অ্যাড. সোহেল আহমেদ, ডা. সাজেদুল হক রুবেল, হাসান তারিক চৌধুরী সোহেল, অভিনু কিবরিয়া ইসলাম, ঢাকা কমিটির সভাপতি মোসলেহ উদ্দিন প্রমুখ।
মিছিলটি সোহরাওয়ার্দী উদ্যানের শিখা চিরন্তন-এ গিয়ে শেষ হয়। ‘আলোর মিছিল’ শেষে মুক্তিয‍ুদ্ধের চেতনা বাস্তবায়নে ৭১’র মত ঐক্যবদ্ধ হয়ে ত্রিশ লাখ শহীদের স্বপ্ন বাস্তবায়নের জন্য উপস্থিত নেতা-কর্মীদের শপথ করান সিপিবি’র সভাপতি মুজাহিদুল ইসলাম সেলিম।