মানবমুক্তির লড়াইয়ে কমরেড লেনিনের শিক্ষা আজো প্রাসঙ্গিক–সেলিম

যুগবার্তা ডেস্কঃ বাংলাদেশের কমিউনিস্ট পার্টি (সিপিবি)’র সভাপতি কমরেড মুজাহিদুল ইসলাম সেলিম বলেছেন, মানবমুক্তির লড়াইকে অগ্রসর করার জন্য কমরেড লেনিনের জীবনের সংগ্রাম থেকে কমিউনিস্টদের শিক্ষা নিতে হবে।

রবিবার বিকালে রাজধানী পল্টনের মুক্তিভবনের ˆমৈত্রী মিলনায়তনে আয়োজিত আলোচনা সভায় সিপিবি ঢাকা কমিটির সভাপতি মোসলেহ উদ্দিনের সভাপতিত্বে আরও বক্তব্য রাখেন ঢাকা কমিটির সাধারণ সম্পাদক ডা. সাজেদুল হক রুবেল, কেন্দ্রীয় কমিটির অন্যতম সদস্য মো. কিবরিয়া, ঢাকা কমিটির সদস্য শংকর আচার্য। সভা পরিচালনা করেন ঢাকা কমিটির সদস্য মানবেন্দ্র দেব।

কমরেড সেলিম বলেন, শুধু রাশিয়ার বুকে নয়, গোটা দুনিয়ার প্রতিটি মুক্তিকামী মানুষের মনে সমাজ পরিবর্তনের স্বপ্নের বীজ বুনে দিয়েছিলেন কমরেড লেনিন। সারা বিশ্বের শোষিত, নিপীড়িত, মুক্তিকামী মানুষের সামনে কমরেড লেনিন যে অসামান্য নজির তুলে ধরেছিলেন, তা চিরদিন উজ্জল ও অম্লান হয়ে থাকবে। সারা দুনিয়ার শ্রমজীবী মেহনতি মানুষের মুক্তির লড়াইয়ে কমরেড লেনিন যে শিক্ষা রেখে গেছেন, তা চিরকাল অনুসরণীয় হয়ে থাকবে। শ্রমিকশ্রেণির লড়াইয়ে তথা মানবমুক্তির সংগ্রামে কমরেড লেনিন চিরভাস্বর হয়ে থাকবেন।

কমরেড সেলিম বলেন, লেনিন শুধু বিপ্লবের তত্ত্ব রচনাই করেননি, তিনি বিপ্লবকে সংগঠিত করতে গুরুত্বপূর্ণ ভূমিকা রেখেছেন। বর্তমান সময়ের প্রেক্ষাপটে তার অভিজ্ঞতা থেকে সৃজনশীলভাবে আমাদের শিক্ষা নিতে হবে। তার শিক্ষা শুধু রাশিয়ার জনগণের মুক্তির সংগ্রামকেই অগ্রসর করে নি বরং আন্তর্জাতিক প্রেক্ষাপটে শ্রমিক শ্রেণির সংগ্রামকে অগ্রসর করে নিতে অসাধারণ ভূমিকা রেখেছে।

সভায় অন্যান্য বক্তারা বলেন, কমরেড লেনিনের জন্মদিন গোটা বিশ্বে শোষণমুক্তির সংগ্রামে নতুনভাবে প্রেরণা আনে, নতুন গতির সঞ্চার করে। লেনিনকে স্মরণ করে মুক্তিকামী মানুষ লড়াইয়ের নতুন প্রেরণা পায়, নতুন করে শপথ গ্রহণ করে। কারণ, যে কোনো সংকটে মুক্তিকামী মানুষকে ছুটে যেতে হয় আন্তর্জাতিক কমিউনিস্ট আন্দোলনের মহান নেতা কমরেড লেনিনের কাছে।

নেতৃবৃন্দ মানব সভ্যতাকে এগিয়ে নিতে কমরেড লেনিনকে আরও অনুশীলন এবং তাঁর বিপ্লবী পথ অনুসরণ করতে নতুন প্রজন্মের প্রতি আহবান জানান।