মাদারীপুরে হাজতির মৃত্যু , পরিবারের দাবি পিটিয়ে হত্যা

11

নাজমুল মোড়ল: মাদারীপুরে হযরত মাতুব্বর (৫০) নামে এক হাজতিকে পিটিয়ে হত্যার অভিযোগ উঠেছে কর্তৃপক্ষের বিরুদ্ধে। বুধবার সকাল ৮টার দিকে চিকিৎসাধীন অবস্থায় মাদারীপুর সদর হাসপাতালে তার মৃত্যু হয়।

নিহত হযরত মাতুব্বর সদর উপজেলার গাছবাড়ি গ্রামের তফেল মাতুব্বরের ছেলে। নিহতের মরদেহ ময়নাতদন্তের জন্য সদর হাসপাতালের মর্গে রাখা হয়েছে।

মাদারীপুর জেলা কারাগার সূত্রে জানা গেছে, মাদারীপুর সদর উপজেলার গাছবাড়িয়া এলাকায় সংঘর্ষের ঘটনায় গত ১৯ ও ২২ জুলাই সদর মডেল থানায় আলাদা দু’টি মামলায় আসামি করা হযরত মাতুব্বরকে। পরে ২৭ সেপ্টেম্বর স্বেচ্ছায় আদালতে হাজির হলে কারাগারে পাঠানোর নির্দেশ দেন বিচারক।

এরপর থেকে মাদারীপুর জেলখানাতেই ছিলো হযরত মাতুব্বর। বুধবার ভোরে হঠাৎ অসুস্থ অবস্থায় হযরতকে ভর্তি করা হয় জেলা সদর হাসপাতালে।

পরে চিকিৎসাধীন অবস্থায় সকাল ৮টার দিকে মারা যান তিনি।
এদিকে হযরতকে পিটিয়ে হত্যার করা হয়েছে বলে দাবি করেন তার স্বজনরা। নিহতের ছেলে সাব্বির মাতুব্বর বলেন, আমার বাবাকে জেলখানার লোকজন পিটিয়ে হত্যা করেছে। আমরা এর বিচার চাই।

তবে অভিযোগ অস্বীকার করে মাদারীপুর জেলা কারাগারের জেলার শংকর মজুমদার জানান, অসুস্থ অবস্থায় হাসপাতালে ভর্তি করা হয় হাজতিকে। পরে হৃদক্রিয়া বন্ধ হয়েই তার মৃত্যু হয়েছে।

মাদারীপুরের অতিরিক্ত পুলিশ সুপার আব্দুল হান্নান মিয়া জানান, আপাতত অপমৃত্যুর মামলা হবে। যেহেতু জেলাখানার ভেতরের বিষয় তাই নির্বাহী ম্যাজিস্ট্রেটরা তদন্ত করবে। সেই মোতাবেক পুলিশ আইনগত ব্যবস্থা নিবে।