মধ্যবর্তী নির্বাচনের সুযোগ নেই: ইনু

মঙ্গলবার নিজ মন্ত্রণালয়ে এক ব্রিফিংয়ে তিনি এ কথা বলেন।
ইনু বলেন, “দেশে আগাম বা মধ্যবর্তী নির্বাচন অনুষ্ঠানের কোন বাস্তব কারণ বা প্রয়োজন নেই। সাংবিধান ও আইন অনুযায়ী যথা সময়ে নির্বাচন অনুষ্ঠানের বাধ্যবাধকতা রয়েছে। এটার অন্যথা হওয়ার বা করার কোন সুযোগ নেই।
বিএনপিহীন দশম জাতীয় সংসদ নির্বাচনে সংখ্যাগরিষ্ঠতা নিয়ে টানা দ্বিতীয় মেয়াদে সরকার গঠন করে আওয়ামী লীগ।
তথ্যমন্ত্রী বলেন, “বলপ্রয়োগ করে কেউ বিএনপিকে ৫ জানুয়ারির নির্বাচনের বাইরে রাখেনি। তখন নির্বাচন বিএনপির এজেন্ডায় ছিল না। এখনও নির্বাচন বিএনপির এজেন্ডা না। বিএনপির নির্বাচনের দাবির পেছনে ভিন্ন উদ্দেশ্য আছে।
নির্বাচনকালীন সরকার নিয়ে সম্প্রতি দেওয়া হাই কোর্টের দুটি ফর্মুলা নিয়ে তিনি বলেন, একটির কাছাকাছি প্রস্তাব গত নির্বাচনের আগে প্রধানমন্ত্রী নিজেই দিয়েছিলেন।
জঙ্গিবাদ-সন্ত্রাসবাদের বিপদ মোকাবেলা করে সাংবিধানিক প্রক্রিয়াকে নিরাপদ রাখাই এখন সবচেয়ে জরুরি বলে মনে করেন জাসদ সভাপতি।
হাসানুল হক ইনুল বলেন, “স্বস্তি-শান্তি-উন্নয়নের ধারা অব্যাহত রাখাই যখন সবচেয়ে জরুরি, তখন সংবিধান সংশোধনের দাবিটা কিছুটা বেমানান।”