ভিডিও চ্যাটের সুযোগ পাবে পশ্চিমবঙ্গে বাংলাদেশি বন্দিরা

জুয়াইরিয়া ফৌজিয়া : পশ্চিমবঙ্গের জেলগুলোতে বাংলাদেশি বন্দিদের সঙ্গে তাদের স্বজনরা ভিডিও চ্যাটের সুযোগ পাবে। আর এ সুযোগ পাবে সর্বোচ্চ ১০ মিনিট।

পশ্চিমবঙ্গের অন্যতম বৃহত্তম দমদম কেন্দ্রীয় কারাগারের বন্দিরাই আপাতত এই সুযোগ পাবেন। পরে সেটা ছড়িয়ে দেওয়া হবে অন্য জেলে গুলোতেও। এই সুবিধার জন্য পশ্চিমবঙ্গ রাজ্য সরকার একটি বিশেষ অ্যাপ চালু করেছে। যার নাম দেওয়া হয়েছে ‘‌ই-মুলাকাত’‌।

কারাবন্দিরা এই পরিষেবা পাবে পুরোপুরি বিনামূল্যে। তবে এর জন্য নথিভুক্ত করা হবে ভিডিও চ্যাট রেকর্ড। এই পরিষেবার মাধ্যমে ইচ্ছা করলে তাদের সংশ্লিষ্ট আইনজীবী বা আইনি সহায়কদের সঙ্গেও কথা বলতে পারবে। বন্দিদের পরিবারকে এর জন্য বঢ়ৎরংড়হং.হরপ.রহ-এই ‌সাইটে গিয়ে লগ ইন করতে হবে এবং প্রয়োজনীয় তথ্যও জানাতে হবে সেখানে। এরপর নির্দিষ্ট সময়ে বন্দিদের সঙ্গে ভিডিও চ্যাট করতে পারবেন পরিবারের সদস্যারা।

দুদিন আগেই আনুষ্ঠানিকভাবে এই অ্যাপের উদ্বোধন করেন পশ্চিমবঙ্গের কারা দফতরের মন্ত্রী উজ্জল বিশ্বাস। এই বিষয়ে যোগাযোগ করা হলে রবিবার মন্ত্রী বলেন, ‌এখানে এমন অনেক বন্দি রয়েছে যারা দূরদূরান্ত থেকে এসেছে। ভিন রাজ্যের বন্দির পাশাপাশি রয়েছে বেশ কিছু বিদেশি আসামিও। এইসব বন্দিদের পরিবারের সদস্যদের সব সময় দেখা করতে আসা সম্ভব হয়ে ওঠে না। এই পরিষেবা বন্দিদের পাশাপাশি তাদের পরিবারদেরও স্বস্তি দেবে। পরিবারের সদস্যদের সঙ্গে কথা বললে তা বন্দিদের মানসিক শক্তিরও যোগান দেবে।

ভারতের বিভিন্ন রাজ্যের বহু বন্দি রয়েছেন দমদম জেলে। এমন কি সেখানে বাংলাদেশের কয়েক’শ বন্দি সাজা ভোগ করছেন। ফলে এই পরিষেবায় বাংলাদেশি বন্দিরাও উপকৃত হবেন।

পশ্চিমবঙ্গের ৫৯ জেলে এই মূহুর্তে ২৫,৬৫২ জন বন্দি রয়েছে। আস্তে আস্তে সব জেলের বন্দিরাই ভিডিও কলের সুবিধা পাবেন বলেও সরকারিভাবে জানা গেছে।-আমাদের সময়.কম