ভারতে চিকিৎসার সুযোগে রূপগঞ্জের বরপা শান্তিনগরে বাসায় ডাকাতি মামলার আসামী হৃদয় গ্রেফতার

বিশেষ প্রতিনিধি : অবশেষে নারায়ণগঞ্জের রূপগঞ্জের বরপা এলাকার নুরুল আবছার এর বাড়িতে ডাকাতির মাধ্যমে ২৩ লক্ষাধিক টাকার মালামাল লুটের প্রধান আসামী হৃদয় গ্রেফতার হয়েছে। রুপগঞ্জ থানার এসআই শামীম আল মামুন এই তথ্য নিশ্চিত করেছেন। তিনি বলেন এই আসামীকে গ্রেফতার করে সাত দিনের রিমান্ড চাওয়া হয়েছে। তাঁকে রিমান্ডে জিজ্ঞাসাবাদের মাধ্যমে বাকী আসামীদের আমরা ধরতে সক্ষম হবো বলে আশা করছি।

এই মামলার ভিকটিম নুরুল আবছার মামলার এজাহারে উল্লেখ করেন- “বিনীত নিবেদন এই যে, আমি নূরুল আফছার চৌধুরী, জন্ম তারিখ -১০/০৫/১৯৬৯ইং, জাতীয় পরিচয়পত্র নং-২৮১৪০৬৩৪১৪, পিতা-নুরুল ইসলাম চৌধুরী, মাতা-মরিয়ম খাতুন, সাং-বরপা শান্তিনগর, ওয়ার্ড নং-৬, তারাব পৌরসভা, থানা-রূপগঞ্জ, জেলা-নারায়ণগঞ্জ।

রূপগঞ্জ থানায় হাজির হইয়া এই মর্মে অভিযোগ দায়ের করিতেছি যে, গত ইং-১০/০৮/২০২২ তারিখে রূপগঞ্জ থানাধীন বরণা শান্তিনগর সাকিনস্থ আমার বসত: বিল্ডিং এর রুমের জানালা আটকাইয়া ও দরজায় তালাবদ্ধ করিয়া এবং বাড়ীর তিনটি কেছি গেইটে তালাবদ্ধ করিয়া আমিসহ আমার স্ত্রী সাবিনা আক্তার চিকিৎসার জন্য ভারতে চলে যাই। আমাদের অনুপস্থিতির সুযোগ লইয়া পূর্ব শত্রুতার জের ধরিয়া আসামী ১। মোঃ হৃদয় (৩৫), পিতা-আঃ রশিদ ড্রাইভার, ২। মোঃ তুহিন (৪০), পিতা-আঃ মনা, উভয় সাং-বরপা শান্তিনগর, তারাব পৌরসভা, থানা-রূপগঞ্জ, জেলা-নারায়ণগঞ্জদ্বয়সহ আরো অজ্ঞাতনামা ৭/৮জন জোটবদ্ধভাবে গত ইং-
২০/১০/২০২২ তারিখ রাত অনুমান ০৯.০০ ঘটিকার সময় রূপগঞ্জ থানাধীন বরপা শান্তিনগর সাকিনস্থ
আমার বসত বাড়িতে প্রবেশপূর্বক বাড়িতে থাকা ভাড়াটিয়াদের খুনের ভয়ভীতি দেখাইয়া বাড়ী থেকে
বাহির করিয়া দিয়া উপরোক্ত আসামীরা আমার বাড়ীতে স্থাপনকৃত ৩টি কেছি গেইট, যাহার মূল্য
অনুমান-১,৪০,০০০/- টাকা, ১টি মেইন গেইট, যাহার মূল্য অনুমান-১,২০,০০০/- টাকা, লোহার ৪০টি
জানালা, যাহার মূল্য অনুমান-২,৪০,০০০/- টাকা, ১২টি বেলকুনি, যাহার মূল্য অনুমান-১,৮০,০০০/-
টাকা, ০৪টি ফ্রিজ, যাহার মূল্য অনুমান-২,০০,০০০/- টাকা, ০৬টি খাট, যাহার মূল অনুমান- ২,০০,০০০/- টাকা, ০২টি জেনারেটর, মূল্য অনুমান-১,৫০,০০০/- টাকা, ০৬টি শোকেজ, ০৪টি কাঠের আলমারী, যাহার মোট মূল্য অনুমান-২,০০,০০০/- টাকা, ০৪টি তালার সিঁড়ির এস.এস. যাহার মূল্য অনুমান-২,৮০,০০০/- টাকা, মেট্রেস ০৬টি, যাহার মূল্য অনুমান-১,০০,০০০/- টাকা, ০৩ সেট সোফা,
যাহর মূল্য অনুমান-৩,০০,০০০/- টাকা, ০২টি এসি, যাহার মূল্য অনুমান- ১,৫০,০০০/- টাকা এবং
০২টি বৈদ্যুতিক মিটারসহ ঘরের অন্যান্য আসবাবপত্র, যাহার মূল্য অনুমান-১,০০,০০০/- টাকাসহ সর্বমোট-২৩,৬০,০০০/- টাকার মালামাল লুটপাট করিয়া নিয়া যায়।

পরে আমার বাড়ির ভাড়াটিয়ারা আমাকে মোবাইলে জানাইলে আমিসহ আমার স্ত্রী ভারত হইতে চিকিৎসা শেষে গত ইং-০১/১১/২০২২ তারিখ রাত অনুমান ০৮.০০ ঘটিকার সময় আমার বসত বাড়িতে আসিয়া ঘটনার সত্যতা পাইয়া বিষয়টি এলাকার গণ্যমান্য ব্যক্তিকাকে দেখাইয়া আসামীদের নাম-ঠিকানা সংগ্রহপূর্বক থানায় আসিয়া অভিযোগ দিতে বিলম্ব হইল।

অতএব, প্রার্থনা এই যে, উল্লেখিত বিষয়ে আইনানুগ ব্যবস্থা গ্রহণ করিতে মর্জি হয়।”