বিশ্বে মৃত্যু সাড়ে তিন লাখ ছাড়িয়েছে

7

রফিকুল ইসলাম সুজনঃ বিশ্ব জুড়ে করোনায় মৃত্যু তিন লাখ ছাড়িয়েছে। মৃত্যুরর মিছিলে এখনও শীর্ষে বিশ্ব মোড়ল যুক্তরাষ্ট্র। দেশটিতে এক লাখ ছাড়িয়ে আরও ৬৭৪ জন যুক্ত হয়েছে। তার পরেই ল্যাটিন আমেরিকার দেশ ব্রাজিল। দেশটিতে মৃত্যু সংখ্যা লাফিয়ে লাফিয়ে বাড়ছে। ইতিমধ্যে পশ্চিম হাজার ছুঁই ছুঁই করছে। দেশটিতে আগষ্ট মাসে আরও ভয়বহ রুপ নিতে পারে বলে মনে করছে বিশ্ব স্বাস্থ্য সংস্থা। ব্রাজিল থেকে যুক্তরাষ্ট্র ভ্রমন নিষিদ্ধ করা হয়েছে। তবে ইউরোপ ইউনিয়নের অনেক দেশে আক্রান্তের সংখ্যা কমতে শুরু করেছে। কমতে শুরু করায় ইতালী, ফ্রান্স, গ্রীসসহ ইউরোপের কয়েকটি দেশ লকডাউন শিথিল করেছে। তবে নাগরিকদের সামাজিক দূরত্ব মেনে চলতে কিছু বাধ্যকতা রাখা হয়েছে। পড়তে হবে মাস্ক । সংক্রামন দ্রুতগতিতে বেড়ে চলছে আর এক পরাশক্তি রাশিয়া। দক্ষিণ এশিয়ার দেশ ভারত ও বাংলাদেশেও সংক্রামণ লাফিয়ে লাফিয়ে বাড়ছে।

চীনের উহান রাজ্যে গত ডিসেম্বরে এই ভাইরাসটির সংক্রমণ শুরু হয়।তারপর একে একে ছড়িয়ে বিশ্বের ১১৩ টি দেশ ও অঞ্চলে। এখনও এই ভাইরাসের কোন ঔষধ আবিস্কার হয়নি। তবে জাপান, চীন, আমেরিকা, কানাডা, ইতালী, কিউবা টিকা আবিস্কারে অনেক দূর এগিয়েছে বলে জানাগেছে। বাংলাদেশও টিকা আবিস্কারে কাজ করছে।
বিশ্বে আজকে পর্যন্ত আক্রান্ত ৫৭ লাখ ১৬ হাজার ৭৮৬ জন । সারাবিশ্ব এর মধ্যে মৃত্যু ৩ লাখ ৫২ হাজার ৯৬৫ জন । সুস্থ হয়েছে ২৪ লাখ ৫৫ হাজার ৭৫৩ জন। উৎপত্তি দেশ চীনে আক্রান্ত ও মৃত্যু উভয় কমলেও উৎপত্তিস্থল উহানে ফের সংক্রামন দেখা দিয়েছে। দেশটিতে এ পর্যন্ত মৃত্যু হয়েছে ৪ হাজার ৬৩৪ জন। যুক্তরাষ্ট্রে মৃত্যু ১ লাখ ৬৭৪ জন । যুক্তরাজ্যে মৃত্যু সংখ্যা কমেছে। এ পর্যন্ত দেশটিতে ৩৭’হাজার ৪৮ জন। কানাডায় মৃত্যু ৬ হাজার ৬৩৯ জন। রাশিয়ায় এ পর্যন্ত মৃত্যু হয়েছে ৩ হাজার ৯৬৮ জনের। স্পেনে মৃত্যু ২৭ হাজার ১১৭ জন । ফ্রান্সে মৃত্যু ২৮ হাজার ৫৩০ জন। ইরানে এ পর্যন্ত মৃত্যু ৭ হাজার ৫০৮ জন। ব্রাজিলে মৃত্যু ২৪ হাজার ৫৯৩ জন।বেলজিয়ামে মৃত্যু হয়েছে ৯ হাজার ৩৩৪ জন। ম্যাক্সিকোতো মৃত্যুর সংখ্যা ৭ হাজার ৬৩৩ জন। জার্মানে মৃত্যু ৮ হাজার ৪৯৮ জন। সৌদী আরবে মৃত্যু ৪২৫ জন। মালয়েশিয়ায় আক্রান্ত ও মৃত্যু কমে যাওয়ায় লকডাউন তুলে দেওয়ার ঘোষণা দিয়েছে। দেশটিতে মৃত্যু ১১৫ জন। পাকিস্তানে মৃত্যু ১ হাজার ১৯৭ জন। ভারত ও বাংলাদেশে আক্রান্তের সংখ্যা বেড়েই চলছে। ভারতে মৃত্যু হয়েছে ৪ হাজার ৪০৬ জন। বাংলাদেশে আক্রান্ত ৩৮ হাজার ২৯২ জন। বাংলাদেশে এ পর্যন্ত মৃত্যু ৫৪৪ জন।