বানারীপাড়ায় পৌর নির্বাচনে সুভাষ শীল পূনরায় পেলেন নৌকা প্রতিক

8

রাহাদ সুমন, বিশেষ প্রতিনিধি : বরিশালের বানারীপাড়া পৌরসভা নির্বাচনে ‘সততার’ পুরস্কার হিসেবে আবারও নৌকা প্রতিকের মনোনয়ন পেলেন বর্তমান মেয়র ও জেলা আওয়ামী লীগের আইন বিষয়ক সম্পাদক মুজিব অন্তঃপ্রাণ অ্যাডভোকেট সুভাষ চন্দ্র শীল। বানারীপাড়া উপজেলা আওয়ামী লীগের সাবেক সভাপতি ও সাধারণ সম্পাদক অ্যাডভোকেট সুভাষ চন্দ্র শীল পৌরসভার মেয়র নির্বাচিত হয়ে গত পাঁচ বছরে পৌর শহরের উন্নয়নে বিশেষ ভূমিকা রাখেন। পৌরসভার কার্যক্রমে শৃঙ্খলা, জবাবদিহিতা, ন্যায়নিষ্ঠতা ও স্বচ্ছতা প্রতিষ্ঠা করেন। দেশে কোভিড-১৯ প্রাণঘাতি নভেল করোনা ভাইরাসের সংক্রমন শুরু হওয়ার পরে তিনি পৌরসভায় ‘ঘরবসতি’ গড়ে তুলে অসহায় মানুষের পাশে দাঁড়িয়ে সহায়তার হাত বাড়িয়ে দেন। ঘরে ঘরে ছুঁটে গিয়ে কর্মহীণ হয়ে পড়া মানুষের হাতে খাদ্য ও পণ্য সামগ্রী তুলে দেন। করোনা বিষয়ে পৌরবাসীকে সচেতন করতে নানা দিকনির্দেশনা দেন। বিতরণ করেন মাস্ক ও হ্যান্ড স্যানেটাইজারসহ সুরক্ষা সামগ্রী। জীবনের ঝুঁকি নিয়ে জনসেবা করতে গিয়ে তিনি করোনায় আক্রান্ত হন। তিনি করোনায় আক্রান্ত হওয়ার পরে তার সুস্থতা কামনায় পৌরবাসীর উদ্যোগে পৌরসভার প্রতিটি মসজিদ ও মন্দিরে বিশেষ দোয়া অনুষ্ঠিত হয়। সুস্থ হয়ে তিনি আবার জনসেবায় ব্রত হন।শাসক নয় সেবক হিসেবে যেকোন প্রাকৃতিক দুর্যোগ ও সমস্যা-সংকটে তিনি মানুষের পাশে দাঁড়ান স্বজনের মতো।
অ্যাডভোকেট সুভাষ চন্দ্র শীল একজন সৎ রাজনীতিকের পথিকৃত হিসেবে সর্বমহলে সুনাম ও সুখ্যাতি অর্জন করেছেন। তাকে পুনরায় স্বাধীনতা-সার্বভৌমত্ব, লাল-সবুজ পতাকা, উন্নয়ন,শান্তি,আস্থা ও ভরসার প্রতিক নৌকার কান্ডারীর দায়িত্ব অর্পণ করায় দলীয় নেতা-কর্মীসহ পৌরবাসী বঙ্গবন্ধু কন্যা প্রধানমন্ত্রী দেশরত্ন শেখ হাসিনা ও দখিনের রাজনৈতিক অভিভাবক বরিশাল জেলা আওয়ামী লীগের সভাপতি আলহাজ্ব আবুল হাসানাত আব্দুল্লাহ এমপিকে ফুলেল শুভেচ্ছা ও উষ্ণ অভিনন্দন জানিয়েছেন। প্রসঙ্গত ১৪ ফেব্রুয়ারি অনুষ্ঠিতব্য চতুর্থ ধাপের বানারীপাড়াসহ ৫৬টি পৌরসভা নির্বাচনে মেয়র প্রার্থীদের তালিকা চূড়ান্ত করেছে আওয়ামী লীগ। বুধবার সন্ধ্যায় গণভবনে আওয়ামী লীগের স্থানীয় সরকার জনপ্রতিনিধি মনোনয়ন বোর্ডের সভায় একক প্রার্থী চূড়ান্ত করা হয়। সভায় আওয়ামী লীগের স্থানীয় সরকার জনপ্রতিনিধি মনোনয়ন বোর্ডের সভাপতি এবং প্রধানমন্ত্রী শেখ হাসিনা সভাপতিত্ব করেন।