বাংলাদেশ-ভারত সীমান্তে পিলার নির্মাণ ৬৩৭, মেরামত ৩২৭

যুগবার্তা ডেস্কঃ বাংলাদেশ ও ভারত সীমান্তে ৬৩৭টি আন্তর্জাতিক সীমানা পিলার নির্মাণ করা হয়েছে। আর মেরামত করা হয়েছে ৩২৭টি সীমানা পিলার। তবে যৌথ সীমানা সম্মেলন না হওয়ায় ভারতের ত্রিপুরা সীমান্তে আন্তর্জাতিক কোনো সীমানা পিলার স্থাপন করা সম্ভব হয়নি। ভূমি মন্ত্রণালয় সূত্রে এসব তথ্য পাওয়া গেছে।
জানা গেছে, বাংলাদেশ ও ভারতের পশ্চিমবঙ্গের সীমান্ত এলাকায় আন্তর্জাতিক সীমানা পিলার নির্মাণ ও মেরামত নিয়ে দুই দেশের মধ্যে মহাপরিচালক পর্যায়ে ২টি সীমান্ত সম্মেলন ও পরিচালক পর্যায়ে একটি যৌথ মাঠ পরিদর্শন অনুুষ্ঠিত হয়েছে। বাংলাদেশ-পশ্চিমবঙ্গ সেক্টরের অপদখলীয় এলাকার ১৬টি ও অমীমাংসিত এলাকার ১টি মোট ১৭টি ইন্টারিম স্ট্রিপ ম্যাপ প্রতিটির ৫টি করে উভয় দেশের প্রতিনিধিদের যৌথ স্বাক্ষর করা হয়েছে। বাংলাদেশ ও ভারতের পশ্চিমবঙ্গের সীমান্ত এলাকায় বিভিন্ন প্রকারের ১০৪টি পিলার নির্মাণ ও ১৮৫টি পিলার মেরামত করা হয়েছে।
এদিকে, বাংলাদেশ ও ভারতের আসাম সীমান্ত এলাকায় মেরামত করা হয়েছে ৭৬টি সীমানা পিলার। এ সেক্টরে নতুন করে সীমান্ত পিলার নির্মাণ করা হয়নি। মহাপরিচালক পর্যায়ে একটি যৌথ সম্মেলন ও পরিচালক পর্যায়ে একটি যৌথ মাঠ পরিদর্শন অনুষ্ঠিত হয়েছে। বাংলাদেশ-আসাম সেক্টরের অপদখলীয় এলাকার ৩টি ও অমীমাংসিত এলাকার ২টি মিলে মোট ৫টি ইন্টারিম স্ট্রিপ ম্যাপ প্রতিটির ৫টি করে উভয় দেশের প্রতিনিধিদের যৌথ স্বাক্ষর করা হয়েছে।
অন্যদিকে, বাংলাদেশ ও ভারতের মেঘালয় সেক্টরের বিভিন্ন প্রকার ৫৩৩টি পিলার নির্মাণ করা হয়েছে। এ সেক্টরের সীমান্তে ৬৬টি পিলার মেরামত করা হয়েছে। বাংলাদেশ-মেঘালয় সেক্টরের অপদখলীয় এলাকার ৭টি ইন্টারিম স্ট্রিপ ম্যাপ প্রতিটির ৫ কপি করে উভয় দেশের প্রতিনিধিদের যৌথ স্বাক্ষর করা হয়েছে।
এ ব্যাপারে ভূমিমন্ত্রী শামসুর রহমান শরীফ বলেন, প্রধানমন্ত্রী শেখ হাসিনার নির্দেশে প্রতিবেশী দেশ ভারতের সঙ্গে সুসম্পর্ক স্থাপন এবং স্বাধীন বাংলাদেশের সার্বভৌমত্ব রক্ষায় ভৌগলিক সীমানা চিহ্নিত করা হয়েছে। বাংলাদেশ-ভারত সীমান্তে সীমানা নিয়ে যাতে কোনো জটিলতা সৃষ্টি না হয়, সেজন্য বর্তমান সরকারের সময়ে আন্তর্জাতিক সীমানা পিলার স্থাপন ও মেরামত করা হয়েছে। তিনি আরও বলেন, বাংলাদেশ ত্রিপুরা সেক্টরে যৌথ সম্মেলনের ব্যবস্থা করা হবে। তবে বাংলাদেশ-ত্রিপুরা সেক্টরে অপদখীয় এলকায় একটি ইন্টারিম স্ট্রিপ ম্যাপ প্রতিটির ৫ কপি করে দুই দেশের মহাপরিচালক ও প্লেনিপোটেনশিয়ারি পর্যায়ে যৌথ স্বাক্ষর করা হয়েছে। নজমূল হক সরকার, আমাদের সময়.কম