বলিভিয়ার বিপক্ষে ৭-০ ব্যবধানে জিতে মাঠ ছাড়ে আর্জেন্টিনা

নামে প্রীতি ম্যাচ, কিন্তু যুক্তরাষ্ট্রের হিউস্টনে বলিভিয়ার বিপক্ষে প্রীতির কোনো লক্ষণই প্রদর্শন করেনি আর্জেন্টিনা। লিওনেল মেসির দুটি, এজকিউয়েল লাভেজ্জির দুটি ও সার্জিও আগুয়েরোর দুটি এবং অভিষিক্ত অ্যাংগেল কোরিয়ার গোলে ৭-০ ব্যবধানে বলিভিয়াকে উড়িয়ে দিয়েছে। বলিভিয়ার বিপক্ষে ম্যাচে মাত্র ছয় মিনিটে লাভেজ্জির গোলে আর্জেন্টিনা এগিয়ে যাওয়ার পরেও বোঝা যায়নি যে কী দুর্ভোগ অপেক্ষা করছে বলিভিয়ার কপালে। ৩৩ মিনিটে রবার্তো পেরেইরার পাস থেকে ব্যবধান দ্বিগুণ করেন সার্জিও আগুয়েরো। ম্যাচের ৪১ মিনিটে আগুয়েরো ও লাভেজ্জির প্রচেষ্টায় তৃতীয় গোলটি হয়। আগুয়েরোর বাড়িয়ে দেওয়া বল বলিভিয়ার জালে জড়িয়ে দেন পিএসজি স্ট্রাইকার লাভেজ্জি। একই জুটি দ্বিতীয়ার্ধে চতুর্থ গোলটি করেন, এবার গোলদাতা আগুয়েরো।
ম্যাচের ৬৫ মিনিটে মাঠে নেমেই সমস্ত আলো নিজের দিকে টেনে নেন লিওনেল মেসি। মাঠে নামার দুই মিনিটের মধ্যে দুর্দান্ত এক হেডে আর্জেন্টিনার দিনের পঞ্চম গোলটি করেন। এর কিছুক্ষণের মধ্যেই আগুয়েরোর বাড়িয়ে দেওয়া পাস থেকে নিজের দ্বিতীয় গোলটি করেন আর্জেন্টিনা অধিনায়ক। তবে এখানেই থেমে না গিয়ে ৮৪ মিনিটে অভিষিক্ত কোরিয়ার গোলে ৭-০ ব্যবধানে জিতে মাঠ ছাড়ে আর্জেন্টিনা। এই ম্যাচে আর্জেন্টিনার দাপট বোঝাতে কিছু পরিসংখ্যান না দিলেই নয়। বলিভিয়ার বিপক্ষে ৭০ শতাংশ বলের দখল ছিল আর্জেন্টিনার এবং সবচেয়ে আশ্চর্যজনক বিষয় হচ্ছে গোলপোস্ট লক্ষ্য করে নয়টি শট নিয়ে সাতটিকেই গোলে পরিণত করেছে আর্জেন্টিনা।