বর্ধিত বাসভাড়া প্রত্যাহার কর, দুর্যোগের দায় যাত্রীরা বহন করবে না

4

বর্ধিত বাসভাড়া প্রত্যাহার কর, দুর্যোগের দায় যাত্রীরা বহন করবে না বলে দাবী করেছে বাম ঐক্য ফ্রন্ট। বাম ঐক্য ফ্রন্টের সমন্বয়ক, গণমুক্তি ইউনিয়নের আহ্বায়ক নাসির উদ্দীন আহম্মদ নাসু, বাংলাদেশের সমাজতান্ত্রিক দল-বাসদ (মাহবুব) আহ্বায়ক সন্তোষ গুপ্ত, বাংলাদেশের সমাজতান্ত্রিক পার্টির সাধারণ সম্পাদক কমরেড সরওয়ার মুর্শেদ এবং কমিউনিস্ট ইউনিয়নের আহ্বায়ক ইমাম গাজ্জালী এক বিবৃতি প্রদান করেন।

বিবৃতিতে নেতৃবৃন্দ বলেন, দুর্যোগের দায় যাত্রীদের ওপর চাপিয়ে দিয়ে সরকার প্রমাণ করেছে, তারা মালিকপক্ষের স্বার্থে কাজ করছে। একই সঙ্গে সরকার তার গণবিরোধী স্বরূপ ফের উম্মোচন করে দিয়েছে। নেতারা ৬০ শতাংশ বর্ধিত বাসভাড়া প্রত্যাহার ও পুনরায় লক ডাউন ঘোষণা দাবি জানান। একই সঙ্গে দুর্যোগ মোকাবেলায় বেসরকারি হাসপাতাল রিকুইজিশন করে করোনা চিকিৎসা প্রসারিত করারও দাবি জানানো হয়।

বিবৃতিতে নেতারা বলেন, যখন কোভিড-১৯ ভাইরাস মহামারি আকরে ছড়িয়ে পড়েছে, তখনই লক ডাউন তুলে দিয়ে সরকার দেশবাসীকে চরম স্বাস্থ্য ঝুঁকির মধ্যে ঠেলে দিয়েছে। সরকারের অপরিণামদর্শি সিদ্ধান্ত ও পদক্ষেপ সমূহ পরিস্থিতিকে আরো জটিল করে তুলেছে।
হাসপাতালে রোগীর ভিড়, চিকিৎসা নেই। ভেন্টিলেশন খুবই অপর্যাপ্ত। সেবা না পেয়ে রোগীরা ছটফট করছে। সামাজিক দূরত্ব মানা যাচ্ছে না। নতুন রোগী ভর্তি করা হচ্ছে না। গাণিতিক হারে বাড়ছে মৃতের সংখ্যা। এই পরিস্থিতিতে অফিস আদালত, দোকানপাট, উপাসনালয় ও গণপরিবহণ খুলে দেওয়া হচ্ছে। দুর্যোগের দায় যাত্রীদের ওপর চাপিয়ে বাসের ভাড়া বাড়ানো হয়েছে।