বরিশালে করোনায় আক্রান্তের সংখ্যা তিনশ ছাড়ালো

1

বরিশাল অফিসঃ গত ২৪ ঘন্টায় আরো ৪০ জনের শরীরে করোনা ভাইরাস শনাক্ত হয়েছে এনি‌য়ে জেলায় ক‌রোনা আক্রা‌ন্তের সংখ্যা দাড়িয়েছে ৩১৯ জনে। বাকেরগঞ্জ উপজেলার গোমার বাসিন্দা ২ জন, বানারীপাড়া উপজেলার বাসিন্দা ১ জন, মুলাদী উপজেলার বাসিন্দা ১ জন, বাবুগঞ্জ উপজেলার বাসিন্দা ১ জন, শের-ই-বাংলা মেডিকেল কলেজ হাসপাতালের ২ জন ইন্টার্ন চিকিৎসক, ৩ জন নার্স এবং ২ জন রেজিস্টারসহ ৭ জন, বরিশাল মেট্রোপলিটন পুলিশের ৬ জন ও জেলা পুলিশের ১ জন, বরিশাল সিটি কর্পোরেশনভুক্ত বাজার রোড এলাকার ৪ জন, সাগরদি এলাকার ৩ জন, নথুল্লাবাদ ও রুপাতলি এলাকায় ২ জন করে ৪ জন, চকবাজার, সদর রোড, কাঠপট্টি, আমানতগঞ্জ, চরের বাড়ি, নাজির মহল্লা, ভাটিখানা, কাউনিয়া ও পুলিশ লাইন প্রত্যেক এলাকার ১ জন করে মোট ৯ জন ও সদর উপজেলাধীন চরকাউয়া ইউনিয়নেট চর আইচা এলাকার ১ জন তাদের কোভিড-১৯ পজিটিভ পাওয়া গেছে। সোমবার বরিশাল শের-ই-বাংলা মেডিকেল কলেজের মাইক্রোবায়লোজি বিভাগে স্থাপিত আরটি-পিসিআর ল্যাবে বেশ কিছু নমুনা পরীক্ষা করা হলে ৪০ জনের রিপোর্ট পরেজটিভ আসে। বরিশাল জেলা প্রশাসক এস, এম, অজিয়র রহমান জানান, রিপোর্ট পাওয়ার পর পরই ওই ৪০ জন ব্যাক্তির অবস্থান অনুযায়ী তাদেরকে লকডাউন করা হয়েছে। তাদের আশপাশের বসবাসের অবস্থান নিশ্চিত করে লকডাউন করার প্রক্রিয়া চলছে। পাশাপাশি তাদের অবস্থান এবং কোন কোন স্থানে যাতায়াত ও কাদের সংস্পর্শে ছিলেন তা চিহ্নিত করার কাজ চলছে, সেই অনুযায়ী ব্যবস্থা নেওয়া হবে। এখন পর্যন্ত বরিশাল জেলায় ৮৬ জন নারী এবং ২৩৩ জন পুরুষ করোনায় আক্রান্ত হয়েছে। এদের মধ্যে শূণ্য থেকে ২০ বছর বয়স পর্যন্ত আক্রান্ত ২১ জন, ২০ থেকে ৫০ বছর পর্যন্ত আক্রান্ত ২৪৮ জন, ৫০ থেকে তার উর্ধে ৫০ জন। বরিশাল জেলায় করোনা আক্রান্ত উপজেলা সমূহ বরিশাল মহানগরী ২৪৮, সদর উপজেলা ৮জন (রায়পাশা কড়াপুর, শায়েস্তাবাদ, টুংঙ্গীবাড়িয়া, জাগুয়া, চরকাউয়া-২ এবং চরমোনাই-২), বাবুগঞ্জ ১৩জন, উজিরপুর ১১জন, মেহেন্দীগঞ্জ ৬জন, বাকেরগঞ্জে ১২জন, হিজলা ৪জন, মুলাদী ৫জন, বানারীপাড়া ৬জন, আগৈলঝাড়া ৩জন এবং গৌরনদীতে ৩জন করোনা রোগী শনাক্ত করা হয়। অদ্যাবধি এ জেলায় মোট ৪৫ জন ব্যক্তি করোনা থেকে সুস্থ হয়ে বাড়ি ফিরেছে। উল্লেখ্য আজ ৩১ মে শের-ই-বাংলা মেডিকেল কলেজ হাসপাতালের ২ জন ইন্টার্ন চিকিৎসক, ৩ জন নার্স এবং ২ জন রেজিস্টারসহ ০৭ জন শনাক্ত হয়েছে। করোনা ভাইরাস প্রাদুর্ভাব শুরুর পর থেকে এ জেলায় স্বাস্থ্য বিভাগে কর্মরত ১৫ জন চিকিৎসক (ইন্টার্ন চিকিৎসক ৬ জন), ২০ জন নার্স, ১ জন নার্স সুপারভাইজার, ১ জন মেডিকেল টেকনলজিস্ট, ২ জন রেজিস্টার, ১ জন পরিবার পরিকল্পনা পরিদর্শক, ১ জন স্টোরকিপার, ১ জন ড্রাইভার, ৩ জন স্টাফ সহ সর্বমোট ৪৫ জন ব্যক্তি করোনা আক্রান্ত হয়েছেন। বরিশাল জেলায় মুলাদী উপজেলায় করোনা শনাক্ত হয়ে ১ জন ব্যক্তি গত ১২ এপ্রিল মৃত্যুবরণ করেন। গতকাল করলার উপসর্গ নিয়ে ৩০ মে মৃত্যুবরণ করা মুলাদী উপজেলার ১ জন ব্যক্তি আজ করোনা পজিটিভ হয়েছে। এ নিয়ে জেলায় ২ জন করোনা পজিটিভ ব্যক্তি মৃত্যুবরণ করেন। গত ১২ এপ্রিল এ জেলায় প্রথমবারের মতো মেহেন্দীগঞ্জ ও বাকেরগঞ্জ উপজেলায় ২ জন করোনা আক্রান্ত রোগী শনাক্ত হয়।