“পৌছাবে ঈদ আনন্দ সবার মাঝে”

অন্তু আহমেদ, জবিঃ ঈদ মানে খুশি যার আজ আরেক ব্যবহারিক অর্থ হয়ে দাঁড়িয়েছে নতুন পোশাক ও বাহারি খাবার । দেশে রমজান মাস জুড়ে তাই সব ছোটখাট শপিংমলেই উপচে পরা ভীড় থাকে। ডিপার্টমেন্টাল স্টোর গুলোতেও ভীড় লেগেই থাকে। তবে এই সময়ে এমন শ্রেণির মানুষও থাকেন যাদের নতুন জামা কেনার আর্থিক সামর্থ থাকে না। থাকে না রমজান মাসে প্রয়োজনীয় ইফতার সামগ্রী কেনার টাকা ও। প্রতিবছর অনেক সংগঠন এই শ্রেণির মানুষদের মুখে হাসি ফোটাতে কাজ করে এবং একেক এলাকার মানুষদের মাঝে ঈদের আমেজ ছড়িয়ে দেয়।

“পৌছাবে ঈদ আনন্দ সবার মাঝে” স্লোগানকে সামনে রেখে নটরডেমিয়ান সোসাইটি অব জগ্ননাথ ইউনিভার্সিটি এই প্রথম দুঃস্থদের মাঝে ঈদ আনন্দ ছড়ানোর লক্ষ্যে পোশাক বিতরণ করেছে। জগন্নাথ বিশ্ববিদ্যালয়ের ১৩বছরের জীবনে প্রায় হাজার খানেক প্রাক্তন নটরডেমিয়ান স্নাতক ডিগ্রী অর্জন করেছে কিংবা করার পথে। তাদের ভ্রাতৃত্ব অটুট রাখার লক্ষ্যেই এই সংগঠনের জন্ম। এই সংগঠনের সদস্যরা ইতিমধ্যেই নানা ধরনের সামাজিক কার্যক্রমের সাথে সম্পৃক্ত। এরই ধারাবাহিকতায় জবি একাউন্টটিং বিভাগের এন আই আহমেদ সৈকতের পরিচালনায় পুরাণ ঢাকায় জবি ক্যাম্পাসের আশেপাশে বসবাসরত ছিয়াত্তরজন দুঃস্থ মানুষের মাঝে নতুন পোশাক বিতরণ করেছে। বয়স্ক মহিলাদের জন্য ছিল শাড়ি, ছেলে বাচ্চাদের শার্ট-প্যান্ট, মেয়ে বাচ্চাদের ফ্রক।