পুরোহিত হত্যায় তিন মিনিটের কিলিং মিশন, ‘আইএস ২০৯’ ককটেল উদ্ধার

যুগবার্তা ডেস্কঃ সকাল ৭টা। পঞ্চগড়ের দেবীগঞ্জে শ্রী শ্রী সন্তগৌড়ীয় মঠ। একটু পরেই শুরু হবে পূজা। মঠের সেবক গোপাল চন্দ্র মন্দির পরিষ্কার করছিলেন। রাধা মাধব দাস নামে একজন পূজারি মন্দিরের ভেতরে পূজার জিনিসপত্র ঠিকঠাক করছিলেন। পূজার প্রস্তুতি নিচ্ছিলেন মঠের অধ্যক্ষ নিলয় ভিক্ষু মহারাজও। তিনি টিউবওয়েলে হাতমুখ ধুতে যান। হঠাৎ অস্ত্রশস্ত্র নিয়ে মঠে প্রবেশ করে তিন দুর্বৃত্ত। টিউবওয়েলের সামনেই নিলয় ভিক্ষুকে কুপিয়ে ও গলা কেটে হত্যা করে তারা। সেবক গোপাল চন্দ্র এগিয়ে এলে তাকেও গুলি করে দুর্বৃত্তরা। পরে দুটি ককটেল ছুড়ে পালিয়ে যায় খুনিরা।
রোববার মঠের সেবক গুলিবিদ্ধ গোপাল চন্দ্রের সামনেই ঘটে এ ঘটনা। তিনি বলেন, ‘খুনিরা মোটরসাইকেলে আসে। মাত্র ৩ মিনিটেই সবকিছু তছনছ করে ককটেল ফাটিয়ে পালিয়ে যায় তারা। সকালে এ হত্যাকা-ের পর রাতে দায় স্বীকার করেছে আন্তর্জাতিক জঙ্গি সংগঠন আইএস। জঙ্গি তৎপরতা পর্যবেক্ষণকারী সং¯’া সাইট ইন্টেলিজেন্স গ্রুপের ওয়েবসাইটে দায় স্বীকারের এ বার্তা আসে। যাদের খবরের গ্রহণযোগ্যতা নিয়ে প্রশ্ন রয়েছে বাংলাদেশ সরকারের। গত বছর ঢাকায় ইতালির নাগরিক সিজার তাভেল্লা এবং রংপুরে জাপানি নাগরিক হোশি কুনিও হত্যা, বগুড়ায় শিয়া মসজিদে এবং ঢাকায় শিয়া সমাবেশে হামলার পরও আইএসের দায় স্বীকারের খবর দিয়েছিল ওই সাইট।
স্থানীয়রা জানান, খুনিরা যাওয়ার সময় দুটি ককটেল নিক্ষেপ করে। এর একটি বিস্ফোরিত হয়। অন্য ককটেলটি ঘটনা স্থলের অদূরে অবিস্ফোরিত অবস্থায় পড়ে থাকে। কালো রঙের ককটেলটির গায়ে ইংরেজিতে লেখা ‘আইএস ২০৯’। ঘটনার সময় আতংকিত হয়ে অসুস্থ হয়ে পড়েন নিতাই চন্দ্র নামে এক ব্যক্তি। তাকে দেবীগঞ্জ স্বাস্থ্ কেন্দ্রে চিকিৎসা দেয়া হচ্ছে।
গুলিবিদ্ধ মঠের সেবক গোপাল চন্দ্রকে রংপুর মেডিকেল কলেজ হাসপাতালে ভর্তি করা হয়েছে। সেখানে তিনি বলেন, মঠটির অবস্থান দেবীগঞ্জের করোতোয়া নদীর ব্রিজসংলগ্ন খুটামারা গ্রামে। পুরোহিত নিলয় মহারাজের (যোগেশ্বর দাস) চিৎকারে তিনি ভেতর থেকে বেরিয়ে আসেন। খুনিরা তাকে দেখেই রিভলবার দিয়ে তার বুক লক্ষ্য করে দুই রাউন্ড গুলি ছোড়ে। তিনি দেয়ালের সঙ্গে দ্রুত বসে পড়ায় গুলি লক্ষ্যভ্রষ্ট হয়ে তার বাঁ হাতের বাহুতে লেগে মাংসপেশি ভেদ করে বেরিয়ে যায়। এরপর আবারও তাকে গুলি করার চেষ্টা করে খুনিরা। কিন্তু রিভলবার থেকে গুলি বের হয়নি। এ সুযোগে তিনি মন্দিরের দেয়াল টপকে নিজেকে রক্ষা করেন। এ সময় পার্শ্ববর্তী বাজারের লোকজন ছুটে এলে খুনিরা পালিয়ে যায়।
তিনি আরও জানান, হামলাকারীরা বয়সে তরুণ। তাদের পরনে ছিল প্যান্ট ও শার্ট। তার ওপর জ্যাকেট। হাতের ব্যাগে ছিল অস্ত্রশস্ত্র। গায়ের রং উজ্জ্বল শ্যামলা। গড়ন হালকা বেঁটে। হামলার সময় তারা বলে ‘আজ আমাদের আনন্দের দিন।’
হামলাকারীরা চলে গেলে স্থানীয়রা তাকে উদ্ধার করে রংপুর মেডিকেল কলেজ হাসপাতালে নিয়ে যান। হাসপাতালের অর্থোপেডিক ওয়ার্ডের বিভাগীয় প্রধান চিকিৎসক শফিকুল ইসলামের তত্ত্বাবধানে চিকিৎসা দেয়া হচ্ছে তাকে। সেখানে কর্তব্যরত চিকিৎসক কাজী মহসিনা সুলতানা জানান, তার অবস্থা শংকামুক্ত। গুলি হাতের মাংসপেশি ভেদ করে বেরিয়ে গেছে। তাকে গভীর পর্যবেক্ষণে রেখে চিকিৎসা দেয়া হচ্ছে। তার চিকিৎসা এবং নিরাপত্তার বিষয়ে জেলা প্রশাসন ও পুলিশের রংপুর রেঞ্জ ডিআইজি কার্যালয় তদারকি করছে। হাসপাতালে তাকে পুলিশ প্রহরায় রাখা হয়েছে।
নিলয় ভিক্ষু মহারাজ (৫০) এ মঠে দীর্ঘ ১৮ বছর ধরে সাধনায় লিপ্ত ছিলেন। তার ভাতিজী তৃপ্তি রায় বলেন, ‘আমার কাকা পৈতৃকসূত্রে পাওয়া জমিজমা বিক্রি করে এ মঠ গড়ে তুলেছিলেন। পরিবার, সমাজ, সংসার সবকিছু ত্যাগ করে সন্ন্যাস জীবন গ্রহণ করেছিলেন। ব্যক্তিগত জীবনে বিয়ে-শাদি পর্যন্ত করেননি। মঠেই পড়ে থাকতেন দিনের পর দিন। তার মতো এমন মানুষের কোনো শত্রু থাকতে পারে- এটা স্বপ্নেও কল্পনা করা যায় না। অথচ তাকে নির্মমভাবে হত্যা করা হল।’
স্থানীয়রা জানান, তিনি ছিলেন অত্যন্ত অমায়িক, নিরীহ ও সাদাসিধে মানুষ। হামলাকারীরা আগে থেকেই মন্দিরের খুঁটিনাটি জেনেছে। কখন হামলার উপযুক্ত সময়। কোন সময় হামলা করে নিরাপদে চলে যাওয়া যাবে ইত্যাদি তারা আগে থেকেই রেকি করেছিল।
এদিকে ঘটনার পরপরই দেবীগঞ্জ থানা পুলিশ পুরো এলাকা ঘিরে ফেলে। খবর পেয়ে পঞ্চগড়-২ আসনের এমপি অ্যাড. নূরুল ইসলাম সুজন, জেলা প্রশাসক মোহাম্মদ সালাউদ্দীন ও পঞ্চগড়ের পুলিশ সুপার মো. গিয়াসউদ্দীন আহম্মদ ঘটনাস্থল পরিদর্শন করেন।
র‌্যাব-১৩ রংপুর ক্যাম্পের অধিনায়ক মেজর ফারহান ঘটনাস্থল পরিদর্শন করেছেন। এ সময় তিনি বলেন, দুষ্কৃতকারীরা দেশে অস্থিতিশীল পরিস্থিতি সৃষ্টির লক্ষ্যে ধর্মীয় প্রতিষ্ঠানে আঘাত হানছে। নিরীহ মানুষকে হত্যা করছে। অপরাধী যেই হোক না কেন- খুব দ্রুতই তাদের খুঁজে বের করে কঠোর শাস্তির আওতায় আনা হবে।
পঞ্চগড় জেলা প্রশাসক মোহাম্মদ সালাহউদ্দীন জানান, ঘটনাটি একটি বিচ্ছিন্ন ঘটনা। আইনশৃংখলা রক্ষাকারী বাহিনী পরিস্থিতি পর্যবেক্ষণ করে দ্রুত ব্যবস্থা নেবে। পঞ্চগড় পুলিশ সুপার মো. গিয়াসউদ্দীন জানান, আমরা বিষয়টি নিয়ে তদন্ত করছি। পরে বিস্তারিত জানাব। ককটেলে ‘আইএস’ লেখা প্রসঙ্গে তিনি বলেন, এটি মূলত আইএসের কাজ নয়, আমাদের দৃষ্টি অন্যদিকে ফেরাতে হামলাকারীরা এ কৌশল নিয়েছে।
বিক্ষুব্ধ জনতার প্রতিবাদ : ঘটনার প্রতিবাদে সকাল ১০টায় বিক্ষুব্ধ জনতা করতোয়া ব্রিজ ও এশিয়ান হাইওয়ে ২ ঘণ্টা অবরোধ করে রাখেন। পরে পুলিশ ও জেলা প্রশাসনের কর্মকর্তাসহ পুলিশের ডিআইজি হুমায়ুন কবির হত্যাকারীদের গ্রেফতারের আশ্বাস দিলে তারা অবরোধ তুলে নেন। তবে অবরোধকারীরা খুনিদের গ্রেফতারের জন্য ৪৮ ঘণ্টার সময়সীমা বেঁধে দিয়েছেন। আজ হত্যাকান্ডের প্রতিবাদে ও সংখ্যালঘুদের নিরাপত্তার দাবিতে সকাল ১০টায় দেবীগঞ্জের বিজয়নগর গোলচত্বরে প্রতিবাদ সমাবেশ ও মানববন্ধনের ডাক দিয়েছে হিন্দু, বৌদ্ধ ও খ্রিস্টান ধর্মীয় ঐক্য পরিষদ। এ কথা জানিয়েছেন সংগঠনের পঞ্চগড় জেলা শাখার সাধারণ সম্পাদক বিতেন চন্দ্র দাস।নোমান, আমাদের সময়.কম