পাটকল বন্ধ করা পাটখাতকে ধ্বংস করার শামীল’—-ওয়ার্কার্স পাটি

7

ডেস্ক রিপোর্টঃ বাংলাদেশের ওয়ার্কার্স পার্টির পলিটব্যুরোর সভার প্রস্তাবে বলা হয় পাটকল বন্ধ করে নয়, রাষ্ট্রায়ত্ব ব্যবস্থাপনায় চালু রেখেই পাটকলের পুরোনো মেশিন সরিয়ে আধুনিক ও উন্নত টেকসই প্রযুক্তি স্থাপন করে এই শিল্পের ঐতিহ্য ও সম্ভাবনাকে কাজে লাগাতে হবে। দেশের ৫০ লাখ
কৃষক পাট চাষের সাথে যুক্ত, পাট ও পাট শিল্পের সাথে ৪ কোটি মানুষের জীবন জীবিকার সম্পর্ক রয়েছে। বাংলাদেশের আত্মপরিচয়ের আন্দোলনের সাথে পাট ও পাট শিল্প অঙ্গাঙ্গিভাবে জড়িত। পাটকল বন্ধ হলে পাট সংশ্লিষ্ট মানুষের জীবনে অন্ধকার নেমে আসবে।
রাশেদ খান মেননের সভাপতিত্বে আজ ভিডিও কনফারেন্স (ভার্চুয়াল) মাধ্যমে সভাটি অনুষ্ঠিত হয়। সভার প্রস্তাবে রাষ্ট্রায়ত্ব পাটকল বন্ধের প্রতিবাদে পাটকল শ্রমিক, শ্রমিক কর্মচারী ঐক্য পরিষদ সহ বিভিন্ন রাজনৈতিক দলের দাবীর প্রতি সমর্থন জানিয়ে রাষ্ট্রায়ত্ব পাটকল বন্ধ নয়,
চালু রাখার জন্য সরকারের প্রতি আহবান জানান হয়।
পার্টির সাধারণ সম্পাদক কমরেড ফজলে হোসেন বাদশা এমপি সভায় পাটশিল্প পরিস্থিতির রিপোর্ট
তুলে ধরেণ; আলোচনায় অংশ নেন, কমরেড শুশান্ত দাস, কমরেড মাহমুদুল হাসান মানিক, কমরেড
কামরূল আহসান, কমরেড আমিনুল ইসলাম গোলাপ, ,কমরেড হাজি বশিরুল আলম,কমরেড এনামুল
হক এমরান, কমরেড নজরুল ইসলাম হাক্কানী প্রমুখ।