পাটকল বন্ধের সিদ্ধান্ত পুঁজিপতিদের হাতে পাট শিল্পকে তুলে দেওয়ার গভীর চক্রান্ত

5

বাসদ (মার্কসবাদী) -এর সম্পাদক কমরেড মুবিনুল হায়দার চৌধুরী আজ এক বিবৃতিতে বলেন–“গত ৩ জুলাই প্রধানমন্ত্রীর কার্যালয় থেকে বিনা নোটিসে অযৌক্তিকভাবে ২৫টি রাষ্ট্রায়ত্ত পাটকল বন্ধের ঘোষণা দেওয়া হয়। কারণ হিসেবে বলা হয়েছে পাটকলগুলো বছরের পর বছর লোকসান গুনে যাচ্ছিলো। সরকার আর লোকসান দিতে পারবে না। এবং এর দায় যথারীতি চাপানো হয় শ্রমিকদের ওপর। কিন্তু সত্য হলো, এর জন্য দায়ী সরকারের দুর্নীতি-ভুলনীতি, বিজেএমসি’র ( বাংলাদেশ জুট মিলস কর্পোরেশন) কর্মকর্তাদের অবাধ লুটপাট। আওয়ামী সরকার পাবলিক -প্রাইভেট পার্টনারশিপের কথা বলে পাটকল বন্ধ ঘোষণা করলো। এর মূল কথা হলো জনগণের প্রতিষ্ঠান পাটশিল্পকে বেসরকারি পুঁজিপতিদের হাতে ছেড়ে দেওয়া। এর মধ্য দিয়ে ক্ষতিগ্রস্ত হবে পাটকলের সঙ্গে যুক্ত ৫২ হাজার শ্রমিক, তাদের পরিবার। এছাড়া উৎপাদন -বিপণনসহ পাট সম্পর্কিত বিভিন্ন কাজের সাথে যুক্ত প্রায় ৪ কোটি মানুষ।
করোনা মহামারীতে বিপর্যস্ত মানুষের জীবন- জীবিকা । এসময় দরকার ছিলো শ্রমজীবী মানুষের জন্য রাষ্ট্রীয় উদ্যোগে অধিক কর্মসংস্থান নিশ্চিত করা। তা না করে উল্টো পাটকল বন্ধের সিদ্ধান্ত নেওয়া হলো।