পর্যায়ক্রমে প্রতিটি উপজেলাকে শতভাগ ভাতার আওতায় আনা হবে–সমাজকল্যাণ প্রতিমন্ত্রী

4

ডেস্ক রিপোর্ট: সমাজকল্যাণ প্রতিমন্ত্রী জনাব মোঃ আশরাফ আলী খান খসরু এমপি বলেছেন, করোনা মহামারী শুরু হওয়ার আগে প্রধানমন্ত্রী শেখ হাসিনা বলেছিলেন, অবসরপ্রাপ্ত সরকারি চাকুরীজীবিদের পাশাপাশি সাধারণ মানুষকেও পেনশন দেওয়া হেব। করোনার জন্য সেটি থমকে গেছে। কিন্তু তার পরিবর্তে তিনি দেশের ১১২ টি উপজেলার শতভাগ বয়ষ্ক, বিধবা ও স্বামী পরিত্যাক্তা মহিলাদের ভাতা কর্মসূচীর আওতায় এনেছেন। পর্যায়ক্রমে প্রতিটি উপজেলাকে শতভাগ ভাতার আওতায় আনা হবে ।

তিনি আজ রাজধানীতে একটি হারবাল কোম্পানীর আয়োজনে করোনা ভাইরাস প্রতিরোধে নিম, নিশিন্ধা, কাঁচা হলুদ ও ঘৃতকুমারীর কার্যকারিতা শীর্ষক আলোচনা সভা ও বিক্রয় প্রতিনিধিদের রিকগনিশন অনুষ্ঠানে প্রধান অতিথির বক্তব্যে এ সকল কথা বলেন।

মডার্ণ হারবাল গ্রুপের উপ-মহাব্যবস্থাপক মোঃ নিয়ামুল বাসার-এর সভাপতিত্বে অনুষ্ঠানে বিশেষ অতিথি হিসেবে উপস্থিত ছিলেন, এশিয়ান টিভির চেয়ারম্যান মোঃ হারুন-উর-রশিদ, মডার্ণ হারবাল গ্রুপের চেয়ারম্যান ড. আলমগীর মতি ও মডার্ণ হারবাল গ্রুপের পরিচালক, ব্রিগেডিয়ার জেনারেল (অবঃ) খন্দকার ফরহাদ হোসেন।

প্রতিমন্ত্রী আরো বলেন, করোনা মহামারীর কারনে সমাজের অসহায় জনগোষ্ঠী সবচেয়ে বেশি ক্ষতিগ্রস্ত হয়েছে। করোনার কারনে ক্ষতিগ্রস্ত এ অসহায় জনগোষ্ঠীকে সামাজিক নিরাপত্তা কর্মসূচির আওতায় আনা হচ্ছে। অসহায় মানুষের মধে ক্ষুদ্র ঋণ বিতরনের মাধ্যমে তাদেরকে স্বাবলম্বী করা হচ্ছে।

প্রতিমন্ত্রী বলেন, ইউনানী ও আয়ুর্বেদীয় পদ্ধতি প্রাচীন চিকিৎসা পদ্ধতি। এ চিকিৎসা পদ্ধতির উন্নয়নে ভেষজ উদ্ভিদ রোপন বাড়াতে হবে। পাশাপাশি এ ধরণের উদ্ভিদ প্রজাতি সংরক্ষণ করতে হবে। তিনি করোনা প্রতিরোধে সবাইকে স্বাস্থ্যবিধি মেনে চলার আহ্বান জানান ।