পরিমলের যাবজ্জীবন কারাদন্ড

যুগবার্তা ডেস্কঃ ভিকারুননিসা নূন স্কুলের বসুন্ধরা শাখার শিক্ষক পরিমল জয়ধরের বিরুদ্ধে দায়ের করা ধর্ষণ মামলায় যাবজ্জীবন কারাদ- ও ৫০ হাজার টাকা জরিমানার (অনাদায়ে ৬ মাসের জেলের) আদেশ দিয়েছেন আদালত।
বুধবার (২৫ নভেম্বর) দুপুর ২টায় আদালত এ রায় দেন।
১০ নভেম্বর মামলার যুক্তিতর্ক শুনানি শেষে ঢাকার ৪ নম্বর নারী ও শিশু নির্যাতন দমন ট্রাইব্যুনালের বিচারক সালেহ উদ্দিন আহমেদ এ রায়ের জন্য বুধবার (২৫ নভেম্বর) দিন ধার্য করেন।
সংশ্লিষ্ট ট্রাইব্যুনালের স্পেশাল পিপি ফোরকান মিয়া বলেন, দুপুর ১২টার পর যে কোনো সময় রায় ঘোষণা করা হবে। যা পরবর্তীতে দুপুর ২টায় রায় প্রকাশ হয়। মামলা প্রমাণের জন্য রাষ্ট্রপক্ষে ২৮ জন সাক্ষীর সাক্ষ্যগ্রহণ করা হয়েছে।
২০১৩ সালের ২২ আগস্ট রুদ্ধদ্বার কক্ষে ধর্ষিতা ছাত্রীর সাক্ষ্যগ্রহণ করেন আদালত। এর আগে ধর্ষিতার মাও এ মামলায় সাক্ষ্য দেন।
ভিকারুননিসা নূন স্কুল অ্যান্ড কলেজের বসুন্ধরা দিবা শাখার দশম শ্রেণীর এক ছাত্রীকে যৌন হয়রানির অভিযোগে ২০১১ সালের ৫ জুলাই রাজধানীর বাড্ডা থানায় মামলা করেন ওই ছাত্রীর বাবা।
মামলায় অভিযোগ করা হয়, ওই ছাত্রীকে প্রলোভন দেখিয়ে ২০১১ সালের ২৮ মে ধর্ষণ করে পরিমল। এ সময় ওই ছাত্রীর নগ্নদৃশ্য মোবাইল ফোনে ভিডিও করা হয়। পরে তাকে ব্ল্যাকমেইল করে ১৭ জুনও ধর্ষণ করা হয়।
মামলার পর ২০১১ সালের ৬ জুলাই কেরাণীগঞ্জে পরিমলের স্ত্রীর বড় বোনের বাসা থেকে তাকে গ্রেফতার করা হয়।
২০১১ সালের ২৮ নভেম্বর অধিকতর তদন্তকারী কর্মকর্তা মহানগর গোয়েন্দা পুলিশের পরিদর্শক মাহবুবে খোদা ভিকারুননিসা নূন স্কুলের বসুন্ধরা শাখার প্রধান লুৎফর রহমান ও অধ্যক্ষ হোসনে আরা বেগমকে অব্যাহতির সুপারিশ করে শুধু পরিমল জয়ধরকে অভিযুক্ত করে আদালতে সম্পূরক চার্জশিট দাখিল করেন।
২০১৩ সালের ৭ মার্চ পরিমলের বিরুদ্ধে অভিযোগ গঠন করা হয়। পরিমলের পক্ষে মামলা পরিচালনা করছেন অ্যাডভোকেট মাহফুজ মিয়া।আমাদের সময় . কম