পত্মীতলায় শত্রুতার জের ধরে বাড়িতে আগুন লাগিয়ে দেয় দুর্বৃত্তরা

আর আই সবুজ, নওগাঁ প্রতিনিধিঃ নওগাঁর পত্মিতলা উপজেলার কোতায়ালী, গগনপুর গ্রামে দুর্বৃত্তদের দেয়া আগুনে একটি বসতবাড়ি পুড়ে ছাই হয়ে গেছে। রবিবার রাত আনুমানিক ১১টায় উপজেলার কোতায়ালী, গগনপুর গ্রামে এ ঘটনাটি ঘটে।

স্থানীয় এলাকাবাসী জানায়, কোতায়ালী গ্রামের আজিজুল হোসেন এর স্ত্রী মিনা বেগম(৫০) ও তার মেয়ে জান্নাতুন খাতুন প্রিয়া (২৮) বসতবাড়ি নির্মাণ করে বসবাস করে আসছেন। রবিবার সন্ধ্যায় তাদের পরিবার সবাই আমাইড় মেছেরবাজার একটি অনুষ্ঠানে যায়। এই সুযোগে দুর্বৃত্তরা ঘটনার রাত অনুমান ১১টার দিকে বাড়িতে ডিজেল ঢেলে আগুন লাগিয়ে দেয়।

জানা গেছে, আজিজুল হোসেনের স্ত্রী মিনা বেগম(৫০) গুলজার নামে এক ব্যাক্তির কাছ থেকে ৩বিঘা জমি ৩ লক্ষ টাকা দিয়ে কোতায়ালী গ্রামে বন্ধক নেন। তাদের মাঝে এই কথা ছিল যে যেকোন সময় বন্ধক জমি টাকা দিয়ে খুলে নিতে পারবেন। গুলজার কয়েকমাস তাদের ধান দেওয়ার পরে আজিজুল হোসেনের স্ত্রী মিনা বেগম(৫০) কে ধান দেওয়া বন্ধ করে দেন। তখন মিনা বেগম তার ৩ লক্ষ টাকা ফেরত চাইতে গেলে তাকে টাল-বাহানা সহ বিভিন্ন হুমকি-ধামকি দেয়। এতে করে মিনা বেগম পত্মীতলা থানায় একটি অভিযোগ করেন । পরবর্তীতে গুলজার ও তার স্ত্রী জেল খাটেন।

তাদের প্রতিবেশি মন্জুয়ারা বাড়িতে আগুন জ্বলতে দেখে বাহিরে বের হয়ে ৫-৬ জনকে পালিয়ে যেতে দেখতে পায় । ৫-৬ জনের ভিতর কোতায়ালী গ্রামের গুলজার হোসেনের পুত্র জলিল(৪০) কে তিনি চিনতে পারেন। এ ঘটনায় ওই এলাকায় ব্যাপক চাঞ্চল্য ও উত্তেজনার সৃষ্টি হয়েছে।

খবর পেয়ে ফায়ার সার্ভিস ঘটনাস্থলে গিয়ে আগুন নিয়ন্ত্রনে আনে। এতে বসতবাড়িতে থাকা নগদ টাকা, আসবাবপত্র, জামা-কাপড়, ধান-চালসহ অন্তত ২লক্ষ ৮০ হাজার সহ আরও অনেক ক্ষতি হয়েছে বলে তিনি দাবি করেন।

এ প্রসঙ্গে জানতে চাইলে পত্মীতলা থানার অফিসার ইনর্চাজ (তদন্ত) জহুরুল ইসলাম জানান, এ ঘটনা সর্ম্পকে তিনি জানেন না।