নিত্য প্রয়োজনীয় পণ্যের দাম কমাও জনগনের জান বাঁচাও

যুগবার্তা ডেস্কঃ নিয়ন্ত্রণহীন দ্রবমূল্য বৃদ্ধি, বিদ্যুতের দাম বাড়ানোর পাঁয়তারা ও দৈনন্দিন জীবনের নৈরাজ্য সন্ত্রাস-সংকট নিরসনের দাবিতে বুধবার বিকেলে জাতীয় প্রেসক্লাবের সামনে সিপিবি-বাসদ ও গণতান্ত্রিক বাম মোর্চা বিক্ষোভ সমাবেশ করে।
বাংলাদেশের কমিউনিস্ট পার্টি (সিপিবি)’র সাধারণ সম্পাদক মো. শাহ আলমের সভাপতিত্বে অনুষ্ঠিত বিক্ষোভ সমাবেশে বক্তব্য রাখেন বিপ্লবী ওয়ার্কার্স পার্টির সাধারণ সম্পাদক সাইফুল হক, বাংলাদেশের সমাজতান্ত্রিক দল-বাসদ এর কেন্দ্রীয় নেতা বজলুর রশীদ ফিরোজ। সমাবেশ পরিচালনা করেন ইউনাইটেড কমিউনিস্ট লীগের কেন্দ্রীয় নেতা নজরুল ইসলাম।

নেতৃবৃন্দের মধ্যে উপস্থিত ছিলেন গণসংহতি আন্দোলনের প্রধান সমন্বয়ক জোনায়েদ সাকী, গণতান্ত্রিক বিপ্লবী পার্টির সাধারণ সম্পাদক মোশরেফা মিশু, বাসদ (মাকর্সবাদী)’র কেন্দ্রীয় নেতা মানস নন্দী, ইউনাইটেড কমিউনিস্ট লীগের সম্পাদকমণ্ডলীর সদস্য অধ্যাপক আব্দুস সাত্তার, সমাজতান্ত্রিক আন্দোলনের হামিদুল হক, সিপিবি’র প্রেসিডিয়াম সদস্য আবদুল্লাহ ক্বাফী রতন।

নেতৃবৃন্দ বলেন, নিত্যপ্রয়োজনীয় দ্রব্যের দাম বৃদ্ধির কারণে দেশের আপামর জনগণ আজ দিশেহারা। নিম্নআয়ের মানুষ আধপেটা খেয়ে দিন-যাপন করছে। যেসকল মানুষের আয়ের বেশির ভাগ অংশ ব্যয় হয় খাদ্যদ্রব্য ক্রয়ের জন্য তারা লাগামহীন খাদ্যমূল্য বৃদ্ধির কারনে আজ অসহায়। বাজার সিন্ডিকেট, আমলা এবং ক্ষমতাসীন দল ও জোটের নেতৃবৃন্দের অসৎ চক্রের কারসাজির কারনেই দ্রব্যমূল্য বৃদ্ধি পাচ্ছে। আন্তর্জাতিক বাজারে দাম কমলেও বাংলাদেশে তা হু হু করে বাড়ছে। সরকারের নিস্ক্রিয়তা এসকল অসৎ চক্রকে উৎসাহ যুগিয়ে যাচ্ছে।
নেতৃবৃন্দ বলেন, টিসিবির মাধ্যমে বাজারে হস্তক্ষেপ করার মধ্য দিয়ে সরকারকে এসকল অসৎ চক্রের উদ্দেশ্য বানচাল করে দিতে হবে। তারা দরিদ্র মানুষের জন্য রেশনিং ব্যবস্থা গড়ে তোলার আহ্বান জানান। নেতৃবৃন্দ নিত্য প্রয়োজনীয় জিনিসের দাম কমানোর দাবিতে পাড়া-মহল্লা ও হাট-বাজারে প্রচারাভিযান চালানোর জন্য সিপিবি-বাসদ ও গণতান্ত্রিক বাম মোর্চার কর্মীদের আহ্বান জানান।