ধর্মীয় সম্প্রীতি বজায় রেখে সবাই শারদীয় দুর্গোৎসব পালন করছে-ডেপুটি স্পীকার

রাজশাহী অফিস: বাংলাদেশে মুসলিম-হিন্দু-বৌদ্ধ-খ্রিস্টান সবাই বঙ্গবন্ধুর ডাকে সাঁড়া দিয়ে, কাঁধ কাঁধ মিলিয়ে মহান মুক্তিযুদ্ধে অংশগ্রহণ করেছিল। সবার লক্ষ্য ছিল অসাম্প্রদায়িক বাংলাদেশ বিনির্মান। শারদীয় দুর্গোৎসবের এই আনন্দঘন পরিবেশই হচ্ছে অসাম্প্রদায়িক বাংলাদেশের প্রতিচ্ছবি।

বাংলাদেশ জাতীয় সংসদের ডেপুটি স্পীকার মোঃ শামসুল হক টুকু, এমপি বাংলাদেশ হিন্দু-বৌদ্ধ-খ্রিস্টান ঐক্য পরিষদ, পাবনা জেলা শাখা কর্তৃক আয়োজিত শারদীয় দুর্গোৎসব-২০২২ উপলক্ষ্যে বস্ত্র বিতরণ অনুষ্ঠানে গতকাল প্রধান অতিথির বক্তৃতায় এসব কথা বলেন।

পাবনা জেলা আওয়ামী লীগের সাধারণ সম্পাদক, গোলাম ফারুক প্রিন্স, এমপি প্রধান বক্তা হিসেবে অনুষ্ঠানে বক্তব্য রাখেন।

ডেপুটি স্পীকার বলেন, জাতির পিতা সবার খাদ্য, বস্ত্র, চিকিৎসা, বাসস্থান নিশ্চিৎ করার লক্ষ্যেই মুক্তির আন্দোলনের ডাক দিয়েছিলেন, বঙ্গবন্ধুর পর এ কাজটি সুন্দরভাবে করে যাচ্ছেন জননেত্রী শেখ হাসিনা। দেশ আজ খাদ্যে স্বয়ংসম্পূর্ণ, গৃহহীনদের প্রধানমন্ত্রীর পক্ষ থেকে ঘর দেয়া হচ্ছে। অস্বচ্ছলদের বিভিন্ন ধরনের ভাতা দেয়া হচ্ছে। নির্বাচিত প্রতিনিধি হিসেবে আমরা সবসময়ই আরোপিত দায়িত্ব পালন করতে চাই।

বাংলাদেশ হিন্দু-বৌদ্ধ-খ্রিস্টান ঐক্য পরিষদ, পাবনা জেলা শাখার সভাপতি, বীর মুক্তিযোদ্ধা শ্রী চন্দন কুমার চক্রবর্তীর সভাপতিত্বে অনুষ্ঠানে বক্তব্য রাখেন, পাবনা জেলা আওয়ামী লীগের সভাপতি মোহাম্মদ রেজাউল রহিম লাল।

এছাড়া অনুষ্ঠানে গন্যমান্য ব্যক্তিবর্গ ও গণমাধ্যমকর্মীগণ উপস্থিত ছিলেন।