দেশে দেশে শ্রেণি সংগ্রাম গড়ে তুলুন

যুগবার্তা ডেস্কঃবিশ্ব ট্রেড ইউনিয়ন ফেডারেশনের ১৭তম কংগ্রেস গত ৫ অক্টোবর থেকে ৮ অক্টোবর দক্ষিণ আফ্রিকার ডারবান শহরে অনুষ্ঠিত হয়। সম্মেলনে দক্ষিণ আফ্রিকার রাষ্ট্রপতি জ্যাকব জুমাসহ অন্যান্য নেতৃবৃন্দ উপস্থিত ছিলেন। উদ্বোধনী অনুষ্ঠানে রাষ্ট্রপতি জ্যাকব জুমা বক্তব্যে বলেন, পুঁজিবাদ সাম্রাজ্যবাদের প্রতিভূ মার্কিন যুক্তরাষ্ট্র লুটপাটের অর্থনীতির দর্শনে ব্যাংক সিন্ডিকেটের মাধ্যমে অর্থনৈতিক মন্দা সৃষ্টি করে। মুক্তবাজার অর্থনীতির নামে একচেটিয়া পুঁজিবাদ কায়েমে মরিয়া হয়ে উঠে। পুঁজিবাদী অর্থনীতির বিরুদ্ধে বিশ্বের শ্রমিক শ্রেণিকে শ্রেণি সংগ্রাম গড়ে তোলার আহ্বান জানান। তিনি বলেন, শ্রমিক শ্রেণির মজুরি অধিকার দাবি আদায়ে সমাজতন্ত্র প্রগতিশীল ধারায় এগিয়ে আসা প্রয়োজন।
ডব্লিউ এফ টি ইউ সাধারণ সম্পাদক জর্জ মাভরিকস গত পাঁচ বছরের কার্যবিবরণী রিপোর্ট পেশ করেন এবং আগামী পাঁচ বছর (২০১৬-২০২০) পর্যন্ত কর্মপরিকল্পনা পেশ করেন। রিপোটেল উপর ১১২টি দেশের প্রতিনিধিগণ আলোচনা করেন এবং রিপোর্ট গৃহিত হয়। উল্লেখ্য যে ইতালি, ফ্রান্সসহ মার্কিন যুক্তরাষ্ট্রের শ্রমিক সংগঠনসমূহ সম্মেলনে যোগদান করে শ্রেণি সংগ্রামের প্রতি সমর্থন ব্যক্ত করেছে। আন্তর্জাতিক শ্রেণি সংগ্রামের ভিত্তিতে ঐক্যবদ্ধ সংগ্রামের উপর গুরুত্বারোপ করা হয়। সম্মেলনে যুব ও নারী সমাজকে ট্রেড ইউনিয়নে সংগঠিত করার উপর সিদ্ধান্ত গৃহিত হয়।
কংগ্রেসে দক্ষিণ আফ্রিকার প্রখ্যাত শ্রমিকনেতা মাজওয়ান্ডিল মাকওয়াবা (গতডঅঘউওখঊ গঅকডঅণওইঅ) সভাপতি এবং গ্রীসের পামের প্রখ্যাত শ্রমিকনেতা ডব্লিউএফ টি ই সাধারণ সম্পাদক জর্জ মাভরিকচ পুর্ণবার সাধারণ সম্পাদক নির্বাচিত হন। সাতচল্লিশ সদস্য বিশিষ্ট প্রেসিডিয়াম কাউন্সিল নির্বাচিত হয়। বাংলাদেশ থেকে বাংলাদেশ ট্রেড ইউনিয়ন কেন্দ্রের সাধারণ সম্পাদক ডা. ওয়াজেদুল ইসলাম খান প্রেসিডিয়াম সদস্য হিসেবে নির্বাচিত হন। সম্মেলনে বাংলাদেশ থেকে শ্রমিক সংগঠনসমূহ টিইউসি, জাতীয় শ্রমিক জোট, শ্রমিক জোট বাংলাদেশ, বাংলাদেশ শ্রমিক ফেডারেশন, সরকারি কর্মচারি সমন্বয় পরিষদ অংশগ্রহণ করে। দক্ষিণ আফ্রিকার শ্রমিক সংগঠন ওসাটো আয়োজক হিসেবে দায়িত্ব পালন করেন। ব্যাপক উৎসাহ উদ্দীপনার মধ্য দিয়ে উদ্বোধনী অনুবাদ অনুষ্ঠিত হয় এবং কাউন্সিল শেষে একটি সুসজ্জিত র‌্যালি ডারবান শহর প্রদক্ষিণ করে।