দেশের সর্বনাশ ডেকে আনবেন না….প্রধান

যুগবার্তা ডেস্কঃ ২০ দলীয় জোট নেতা ও জাগপা সভাপতি শফিউল আলম প্রধান বিরোধী দলের বিরুদ্ধে গুপ্ত হত্যার অভিযোগকে দূর্ভাগ্য জনক বলে অবিহিত করেছেন। রাজনৈতিক এতিম না হলে কোন নেতা-নেতৃ বা প্রধানমন্ত্রী এভাষায় কথা বলতে পারেন না। বাইরে তালাশ না করে ডানে বামে তাকালেই তিনি গুপ্ত হত্যার কারিগরদের দেখতে পাবেন। ৭২,৭৫ এর আমল নামা দেখুন। ভিনদেশের ইঙ্গিতে ওরা বঙ্গবন্ধুকে শান্তিতে থাকতে এমন কি বাঁচতে পর্যন্ত দেয় নাই। ৫ই জানুয়ারীর কথিত নির্বাচন রাষ্ট্রকে ধ্বংসের কিনারায় ধার করিয়েছে। সবার অংশ গ্রহণে গ্রহণ যোগ্য নির্বাচন ছাড়া শুধু বন্দুক সমস্যার সমাধান নয়। জঙ্গী রাষ্ট্র হিসেবে প্রমাণে যে সরকার হেন অপকর্ম নাই করে নাই তারাই এখন প্রাণ পণে জঙ্গী তৎপরতাকে আবিষ্কার করছে কেন? বিশ্ব রাজনৈতিতে এমন কি হল যে, জালীমশাহী এখন নিজের থুথু নিজেই গিলতে বাধ্য হচ্ছে। মনে রাখবেন দোষারোপের খুচরা চালাকি আর ইসলামি যোদ্ধাদের উত্থানের আশঙ্কা এক কথা নয়। আল্লাহর ওয়ান্তে গদির লোভে কেও মাতৃভূমিকে সিরিয়া-ইরাক,সিকিম-ভূটান বানানোর চেষ্টা করবেন না। নিহত পুত্রের রক্তের বিষাধময় ক্যানভাসে দাড়িয়ে একজন মহান মানবতাবাদী প্রজ্ঞা দার্শনিক আবুল কাশেম ফজলুল হকের কালজয়ি উক্তির ন্যায্যতা বোঝার চেষ্টা করুন। শুভ বুদ্ধির জাগরণের ডাকে সাড়া দিন। দেশের এবং নিজের সর্বনাশ ডেকে আনবেন না।
তিনি দেশপ্রেমিক সকল যুব সংগঠনকে ঐক্য বদ্ধ সংগ্রাম পরিষদ গঠনের তাগিদ দিয়ে বলেন, একমাত্র যুব ও ছাত্র শক্তি বর্তমান চ্যালেঞ্জকে মোকাবেলা করতে সক্ষম। রক্তে কেনা বাংলাদেশকে তোমরা গোলাম বানাতে দিয়োনা। একটি প্রতিবেশী রাষ্ট্র কখনোই চায়নাই বাংলাদেশ মাথা উচু করে দাড়াক। জন্মলগ্ন থেকে অনুগত দালালদের দিয়ে তারা জাতিকে বারবার টুকরো টুকরো করছে। সুজাতা সিংয়ের ৫ই জানুয়ারী নির্বাচনই এর শেষ পর্ব। রাষ্ট্র এখন অস্তিত্বের সঙ্কটে, রুখে দাড়াও বাংলাদেশ।
ঢাকা জেলা যুব জাগপার সমাবেশে প্রধান অতিথির বক্তব্যে তিনি এসব কথা বলেন। বুধবার আসাদগেট জি,ইউ,পি মিলনায়তনে অনুষ্ঠিত যুব সমাবেশে সভাপতিত্ব করেন যুব জাগপা ঢাকা জেলার সভাপতি আবুল হোসেন পারভেজ সাধারণ সম্পাদক আহাম্মদ সানির পরিচালনায় সভায় বিশেষ অতিথি ছিলেন জাগপা’র যুগ্ম সাধারণ সম্পাদক রকিব উদ্দিন চৌধুরী মুন্না,সাংস্কৃতিক সম্পাদক শেখ শহীদ,ঢাকা জেলা জাগপার সভাপতি ভিপি মজিবর রহমান,যুব জাগপার সভাপতি ফাইজুর রহমান,সাধানণ সম্পাদক শেখ ফরিদ উদ্দিন, বক্তব্য রাখেন জাগপা ও যুবজাগপা নেতা মণির হোসেন ভূইয়া,নুরুল আলম,শফিক আহম্মদ,শেখ আবুল হোসেন প্রমুখ।