দুই চিকিৎসকসহ দেশে আরও চার জন করোনায় আক্রান্ত

4

প্রবীর আইচঃ করোনাভাইরাসে দেশে দুই চিকিৎসকসহ আরও চার জন শনাক্ত হয়েছে। এ নিয়ে আক্রান্ত ৪৮ জন। আজ সকালে স্বাস্থ্য অধিদপ্তরের রোগতত্ত্ব, রোগ নিয়ন্ত্রণ ও গবেষণা প্রতিষ্ঠানের (আইইডিসিআর) পরিচালক অধ্যাপক ড. মীরজাদী সেব্রিনা ফ্লোরা এ তথ্য নিশ্চিত করেছেন।।

অনলাইন সংবাদ ব্রীফিংএ জানান, গত ২ট৪ ঘন্টায় নমুনা সংগ্রহ ও পরীক্ষা করা হয় ১০৬ জনের। এ নিয়ে মোট ১ হাজার ২৬ জনের নমুনা পরীক্ষা করা হয়েছে। দেশে মোট ৪৭ জন আইসোলেশনে আছেন। প্রতিষ্ঠানিক কোয়ারান্টাইনে আছেন ৪৭ জন। নিয়ম না মানায় বিভিন্ন জেলায় জরিমানা করা হচ্ছে।

ফ্লোরা আরও জানান, ২৪ ঘন্টায় নতুন ১২৬ জনের নমুনা সংগ্রহ করা হয়েছে। এদের মধ্যে দিয়ে ৫ জন শনাক্ত হয়। এর মধ্যে ৪৪ জন আক্রান্ত নিশ্চিত করা হয়েছে। এ থেকে সুস্থ হয়ে বাড়ি ফিরেছেন ১১ জন।দেশে মোট মৃত্যু সংখ্যা পাঁচ জন।

তিনি আরও বলেন, সামাজিক বিচ্ছিন্ন করনের আজ দ্বিতীয় দিন। বাড়ির বাইরে যেতে বারন করে আরও বলেন, যারা রাজধানী থেকে তারা হোম কোয়ারান্টািনে থাকবে। কারও শরীরে সমস্যা দেখা দিলে বিভাগীয় শহর ও জেলা স্বাস্থ্য অধিদপ্তরে যোগাযোগ করতে বলেন।

তিনি বলেন, রোগের বিস্তার বৃদ্ধি পেয়েছে। নমুনা সংগ্রহ ও পরীক্ষা করতে সময় লাগছে।

স্বাস্থ্য মন্ত্রণালয় জানায়, ঢাকার বাহিরেও নমুনা পরীক্ষার ব্যবস্থা হচ্ছে। ইতিমধ্যে ২ লাখ কীট ও চিকিৎসা সরঞ্জাম সংগ্রহে আছে।

আরও জানান, ঢাকায় ৬ হাজার বেড প্রস্তুত রাখা হয়েছে। প্রতি জেলায় একশত বেড রাখা হয়েছে।

জানাগেছে, ঢাকায় পাঁচ হাসপাতাল প্রস্তুত করার কথা হলেও বাস্তবে উল্টো। একটি হাসপাতাল ছাড়া অন্য চারটি কোন চিকিৎসার ব্যবস্থা নাই। আর কুয়েত মৈত্রী হাসপাতালে রয়েছে অব্যবস্থাপনা।

দুই কোটির রাজধানীর শহর এখন নিস্তব্ধ হয়ে গেছে। আইনশৃখলা বাহিনী মাঠে তৎপর। মাইকিং চলছে ঘর থেকে বের না হওয়ার জন্য।তবে রাজধানীর মুল সড়কে যানবাহন চলাচল না থালেও অলি গলিতে ছোট যানবাহন চলছে। লোকজনও চা দোকানে ভীড় করছে। অনেকেরই করোনা প্রতিরোধের ব্যবস্থা নাই। এ বিসয় মনে হয়েছে উদাসীন। তবে আগের তুলনায় সড়কে সমাগম কমে গেছে।

সারাদেশে গনপরিবহন বন্ধ থাকায় সারাদেশ লকডাউন রয়েছে। ওষুধ, কাঁচা মালের দোকানপাট বন্ধ ঘোষণা করেছে প্রশাসন। মানুষ জন তেমন বের না হলেও ঢাকার মানুষ গিয়ে গ্রামে সমস্যা তৈরী করছে। জেলা ও উপজেলা শহরে আইন শৃখলা বাহিনী তৎপর থাকায় অনেকটা নিয়ন্ত্রণে আছে।