দক্ষতা বৃদ্ধির জন্য প্রশিক্ষণের বিকল্প নেই

38

বিশেষ প্রতিনিধিঃ সোমবার সকালে ঢাকার আগারগাঁওস্থ জাতীয় স্থানীয় সরকার প্রতিষ্ঠানে শুরু হল তিন দিনব্যাপী গ্রাম আদালত বিষয়ক বিশেষ দক্ষতা বৃদ্ধিমূলক প্রশিক্ষকদের রিফ্রেসার্শ ট্রেনিং। এতে চাঁদপুর সহ অন্যান্য জেলার মোট ২২ জন ডিস্ট্রিক্ট ট্রেনিং পুলের (ডিটিপি) সদস্য অংশগ্রহণ করেন।

প্রশিক্ষণটি পরিচালনা করবেন এনআইএলজি উর্ধতন কর্মকর্তাবৃন্দ। এতে সামগ্রিক সহায়তা প্রদান করেন ইউএনডিপি’র দক্ষতা উন্নয়ন সেলের এনামুল হক ও রীতা দাস।

প্রশিক্ষণ উদ্বোধনকালে জাতীয় স্থানীয় সরকার প্রতিষ্ঠানের প্রশিক্ষণ উপসচিব মোঃ আরিফ বলেন, দক্ষতা বৃদ্ধির জন্য প্রশিক্ষণের বিকল্প নেই। মানুষকে সম্পদে রূপান্তর করতে হলে দক্ষতা বৃদ্ধি করা খুবই প্রয়োজন। এজন্য চাই যথাযথ প্রশিক্ষণ ও কার্যকর ফলো-আপ। প্রথম দিনের প্রশিক্ষণে মূল সেশনটি পরিচালনা করেন এনআইএলজি’র প্রশাসনিক পরিচালক যুগ্ম সচিব মোঃ বোরহান উদ্দিন ভূইয়া। বিশেষ সেশন পরিচালনা করেন এসএপিআই প্রকল্পের ন্যাশনাল কনসালটেন্ট এ্যাডভোকেট মোঃ সাইদুর রহমান।

প্রশিক্ষণে চাঁদপুর থেকে অংশগ্রহণ করেন যথাক্রমে মতলব-সাকেলের সহকারী পুলিশ সুপার আহসান হাবিব, যুব-উন্নয়ন উপপরিচালক মোঃ সামসুজ্জামান, গ্রাম আদালতের ডিস্ট্রিক্ট ফ্যাসিলিটেটর (ডিএফ) নিকোলাস বিশ্বাস, জেলা মহিলা বিষয়ক কর্মকর্তা মোছাঃ মাকসুদা আক্তার ও সহযোগী সংস্থার জেলা সমন্বয়কারী মোঃ আমিনুর রহমান সহ তার উপজেলা সমন্বয়কারীবৃন্দ। এছাড়াও এতে অংশগ্রহণ করেন প্রকল্পের সহযোগী সংস্থা যথাক্রমে ব্লাষ্টের প্রকল্প সমন্বয়কারী মোঃ বশির আহম্মেদ মনি, ওয়েভ ফাুউন্ডেশনের প্রকল্প সমন্বয়কারী মোঃ নজরুল ইসলাম ও ইএসডিও’র প্রকল্প সমন্বয়কারী মোঃ তোফাজ্জল হোসেন।

এর আগে আরো তেরটি ব্যাচে মোট ২৬ জেলার ডিস্ট্রিক্ট ট্রেনিং পুলের (ডিটিপি) সদস্যদের পর্যায়ক্রমে প্রশিক্ষণ দেওয়া হয়েছে। প্রশিক্ষণে গ্রাম আদালত আইন ২০০৬ (সংশোধন ২০১৩) এবং গ্রাম আদালত বিধিমালা ২০১৬ সহ গ্রাম আদালতের বিভিন্ন বিষয় নিয়ে আলোচনা হবে।

প্রকল্পাধীন মোট ২৭ জেলায় ডিস্ট্রিক্ট ট্রেনিং পুলের সদস্যবৃন্দ নিজ নিজ জেলায় গ্রাম আদালতের সঙ্গে সংশ্লিষ্ট সকল ইউপি চেয়ারম্যান, সদস্য, সচিব, গ্রাম আদালত সহকারী ও গ্রাম পুলিশদের গ্রাম আদালত আইন ও বিধিমালার উপর বিশেষ প্রশিক্ষণ প্রদান করবেন যাতে তারা আইনি প্রক্রিয়া অনুসরণ করে গ্রাম আদালতে বিচার-কার্য পরিচালনা করতে পারেন। জেলাগুলোতে এই ট্রেনিং পুলের সদস্য হিসেবে রয়েছেন যথাক্রমে স্থানীয় সরকার উপপরিচালক, জেলা লিগ্যাল এইড অফিসার, উপজেলা নির্বাহী কর্মকর্তা, সহকারী পুলিশ সুপার, সমাজসেবা উপপরিচালক, যুব-উন্নয়ন উপপরিচালক, জেলা মহিলা বিষয়ক কর্মকর্তা ও গ্রাম আদালতের ‍ডিস্ট্রিক্ট ফ্যাসিলিটেটর সহ প্রকল্পের সহযোগী সংস্থার সংশ্লিষ্ট জেলা ও উপজেলা সমন্বয়কারীবৃন্দ।