ঢাকাই সিনেমায় ব্যস্ত তানিন সুবহা

যুগবার্তা ডেস্কঃ ঢাকাই সিনেমায় বেশি দিন হয়নি পা রেখেছেন। এরমধ্যেই বেশ কয়েকটি সিনেমায় সাফল্যের সঙ্গে অভিনয় করেছেন তিনি। এখন তিনি ঢাকাই সিনেমার একজন ব্যস্ত নায়িকা। বলছিলাম লাস্যময়ী চিত্রনায়িকা তানিন সুবহার কথা। রূপের জৌলস আর অভিনয় দিয়ে তিনি বেশ ধাপিয়ে বেড়াচ্ছেন ঢাকাই সিনেমাপাড়ায়।
‘মাটির পরী’ সিনেমা দিয়ে অভিষেক হয় তানিনের। এই ছবির জন্যেই বেস্ট নায়িকা ক্যাটাগরির অ্যাওয়ার্ড তার সাফল্যের ঝুঁড়িতে।
সেই ধারাবাহিকতায় সম্প্রতি তিনি বিশিষ্ট চলচ্চিত্র পরিচালক জাকির হোসেন রাজু পরিচালিত ‘ভালো থেকো’ ছবিতে অভিনয় করছেন।
ছবিতে এই প্রথম জুটি বেঁধেছেন আরিফিন শুভ ও তানহা তাসনিয়া। এতে আরো অভিনয় করেছেন- কাজী হায়াৎ, আমজাদ হোসেন, রেবেকা, এম এ শহীদ এবং আসিফ ইমরোজ।
জাকির হোসেন রাজুর ছবিতে অভিনয় প্রসঙ্গে তানিন সুবহা বলেন, আমার প্রিয় পরিচালক শ্রদ্ধেয় জাকির হোসেন রাজু স্যার। অনেক আগে থেকে স্বপ্ন দেখতাম, স্যারের ছবিতে অভিনয় করবো। আজ স্বপ্নটি পূরণ হচ্ছে। এমন একটি বড় সুযোগ করে দেওয়ার জন্য রাজু স্যারের প্রতি কৃতজ্ঞ আমি।
“আমার ভালোবাসার জগতটাই সিনেমাকে ঘিরে। তাই ‘ভালো থেকো’ ছবিতে নিজের সর্বোচ্চ সাধনায় করে যাবো। পূর্ণ মনোযোগে অভিনয় করে আমি রাজু স্যারের মন জয় করতে চাই।”
কথা প্রসঙ্গে তানিন জানান, ‘সত্যি কথা বলতে নায়িকা হবো, এটা কখনো ভাবিনি। ছিলাম গায়িকা, হলাম নায়িকা। ২০১২ সালে ক্লোজআপ ওয়ানের মাধ্যমে আমার মিডিয়ায় আসা। তারপরে স্যোশাল মিডিয়ার মাধ্যমে পরিচয় হয় ফিল্মমেকার ও বিজ্ঞাপননির্মাতা নারায়ণ চন্দ্র দাসের সঙ্গে। দাদার হাত ধরেই আমার মিডিয়ায় আসা। এরপরই সিনেমায় সুযোগ আসে।
ভবিষ্যৎ পরিকল্পনা প্রসঙ্গে তানিন সুবহা বলেন, ভবিষ্যত চিন্তাভাবনা সব ফিল্মকে ঘিরেই। একজন ভাল অভিনেত্রী হতে চাই। দর্শকদের মনে আজীবন বেঁচে থাকতে চাই।