জবির প্রথম সমাবর্তনে আবেদন জটিলতা

অন্তু আহমেদ, জবিঃ বিশ্ববিদ্যালয়ের শিক্ষা জীবন শেষে মূল সনদপত্র দেওয়া হয় সমাবর্তনের মাধ্যমে। কিন্তু জগন্নাথ বিশ্ববিদ্যালয় (জবি) প্রতিষ্ঠার এক যুগ অতিক্রম করলেও সমাবর্তন পাননি কোনো ডিগ্রিধারী। দীর্ঘ আন্দোলনের পর এই বছরের নভেম্বরে প্রথম সমাবর্তনের আয়োজন করতে যাচ্ছে বিশ্ববিদ্যালয় কর্তৃপক্ষ। তবে রেজিস্ট্রেশন জটিলতা ও বিশ্ববিদ্যালয় কর্তৃপক্ষের উদাসীনতায় ডিগ্রিধারীদের আবেদনে ভাটা পড়েছে। এদিকে আবেদনের মেয়াদ বাড়ানোর দাবি জানিয়েছেন শিক্ষার্থীরা।

বিশ্ববিদ্যালয়ের উপাচার্য মীজানুর রহমান বলেন, পূর্বের কোনো অভিজ্ঞতা ছাড়াই সমাবর্তন আয়োজন করা হচ্ছে। আবেদন করা না করা আবেদনকারীদের ইচ্ছা। তবু যদি শেষ দুই দিন আবেদনকারীদের আগ্রহ দেখি তবে আরও কিছু সময় বাড়ানো হতে পারে।

সূত্র জানায়, সমাবর্তনের জন্য ডিগ্রিধারীদের গত ১ মার্চ থেকে ৩০ এপ্রিল পর্যন্ত সমাবর্তনের জন্য আবেদন করতে জানানো হয়। বিশ্ববিদ্যালয়ের ৭১ হাজার শিক্ষার্থী সমাবর্তনে অংশগ্রহণ যোগ্য। গতকাল সোমবার রেজিস্ট্রার দপ্তরের দেওয়া শেষ তথ্যানুযায়ী, আবেদন জমা পড়েছে ১৯ হাজার ৩২৬ জনের। সমাবর্তন ফি জমা দিয়ে আবেদন সম্পন্ন করেছে ১০ হাজার ১৮৭ জন। পেমেন্ট প্রক্রিয়ায় জটিলতার কারণে ফি জমা দিতে পারেনি বলে অভিযোগ জানিয়েছেন অনেক শিক্ষার্থী। রয়েছে আবেদন প্রক্রিয়ায় জটিলতা। আবেদন প্রক্রিয়া শুরু হওয়ার পর ধাপে ধাপে টুলস পরিবর্তন ও ওয়েবসাইট আপডেট করা হয়েছে বেশ কয়েকবার। এর জন্য আলাদা কোনো নোটিশ দিয়ে জানানো হয়নি। এতে শিক্ষার্থীদের আবেদন করতে ঝামেলা সহ্য করতে হয়েছে। আবার অনেকের ভুল-ত্রুটি সংশোধনে বাড়তি বিড়ম্বনায় পড়তে হচ্ছে। অভিযোগ জানাতে কোন হটলাইনের ব্যবস্থাও রাখেনি বিশ্ববিদ্যালয় প্রশাসন।

আবেদন কম জমা হওয়ার জন্য বিশ্ববিদ্যালয়ের সাবেক শিক্ষার্থী, শিক্ষক ও কর্মকর্তাদের অভিযোগ, যথাযথ প্রচারণা না করা আবেদনে প্রক্রিয়া সম্পন্ন করতে দীর্ঘ সময় লাগা, বিভিন্ন কারিগরি ত্রুটি ও জটিলতা থাকা, ফি জমা দেওয়ায় ব্যাংক এর সুযোগ না রাখা, প্রায়ই সার্ভার ডাউন ও বন্ধ থাকা সহ নানা সমস্যার জন্য সমাবর্তনে ডিগ্রিধারীদের আগ্রহ দেখা যাচ্ছে না। যে কয়েকজন আবেদন করেছেন, ফি জমা দিতে অধিকাংশ শিক্ষার্থী বিড়ম্বনার শিকার হয়েছেন।

সমাজবিজ্ঞান বিভাগের ৬ষ্ঠ ব্যাচের শিক্ষার্থী শামীম হোসেন বলেন, সমাবর্তনের আবেদনের জন্য দীর্ঘ দুই মাস সময় থাকলেও টাকা জমা দেওয়ার প্রক্রিয়া বিশ্ববিদ্যালয় কর্তৃপক্ষ প্রকাশ করেছেন সমাবর্তন আবেদন জমা দেওয়ার শেষ দশ দিন আগে। এতে এখন অনেকে এক সাথে আবেদন করায় প্রায়ই সার্ভার ব্যস্ত ও কাজ করছে না। ফলে শিক্ষার্থীদেরও আগ্রহ থাকছে না।

সমাবর্তন প্রত্যাশি অথনীতি বিভাগের শিক্ষার্থী রুহুল আমিন বলেন, অনেক লড়াই সংগ্রামের পরে অনুষ্ঠিত হতে যাচ্ছে জবির হাজারো শিক্ষার্থীর আরাধ্য প্রথম সমাবর্তন। নানা জটিলতায় পূর্ণ ছিল সমাবর্তনের রেজিস্ট্রেশন প্রক্রিয়া, ফলে অনেকেই সঠিকভাবে উক্ত নির্দিষ্ট সময়ে রেজিস্ট্রেশন করতে পারেনি। অনেক কষ্টে অর্জিত সমাবর্তন থেকে কেউ বঞ্চিত হবে, তা কাম্য নয়। তাই প্রশাসনের প্রতি অনুরোধ, অনতিবিলম্বে সমাবর্তনের রেজিস্ট্রেশনের সময় বৃদ্ধি করুন।

এ ব্যাপারে বিশ্ববিদ্যালয়ের রেজিস্ট্রার প্রকৌশলী মো. ওহিদুজ্জামান বলেন, আবেদন প্রক্রিয়া সহজভাবে সম্পন্ন করার চেষ্টা করা হয়েছে। তবে আমাদের আইটি সেক্টরে দক্ষ জনবলের অভাব রয়েছে। তাই কিছু কারিগরি জটিলতা সৃষ্টি হয়েছিল। আরও বলেন, শিক্ষার্থীরা আবেদন করলে রেজিস্ট্রেশনের সময় বাড়ানো হবে।