ছাত্রীর সঙ্গে আপত্তিকর ভিডিও, শিক্ষক বরখাস্ত

রাজশাহী অফিসঃ ছাত্রীর সঙ্গে আপত্তিকর ভিডিওচিত্র ছড়িয়ে পড়ার ঘটনায় রাজশাহীর গোদাগাড়ী উপজেলার গুলগোফুর বালিকা উচ্চ বিদ্যালয়ের সহকারী শিক্ষক ময়েন উদ্দীনকে সাময়িক বরখাস্ত করা হয়েছে। উপজেলা মাধ্যমিক শিক্ষা কর্মকর্তা শামশুল করিম বৃহস্পতিবার বিকেলে এ তথ্য নিশ্চিত করেছেন।

তিনি জানান, দুপুরে গুলগোফুর বালিকা উচ্চ বিদ্যালয় ও মহাবিদ্যালয়ের অধ্যক্ষ স্বাক্ষরিত এক চিঠির মাধ্যমে বহিস্কার আদেশটি শিক্ষক ময়েন উদ্দীনের কাছে পৌছে দেওয়া হয়েছে।

জানতে চাইলে অধ্যক্ষ আমিনুর রহমান বলেন, লিখিত অভিযোগ পাওয়ার পর পরিচালনা পর্ষদের জরুরী সভা আহ্বান করা হয়েছিল। সভায় ঘটনা তদন্তে একটি কমিটি গঠন করা হয়। এই কমিটি প্রাথমিকভাবেই অভিযোগের সত্যতা পায়। একারণে নৈতিক শৃঙ্খলা ভঙ্গের অভিযোগে শিক্ষক ময়েনকে সাময়িক বরখাস্ত করা হয়েছে।

অধ্যক্ষ জানান, তদন্ত কমিটি তাদের প্রতিবেদন দেয়ার পর পরিচালনা পর্ষদ সিদ্ধান্ত নেবে, শিক্ষক ময়েনকে স্থায়াভাবপ বরখাস্ত করা হবে কী না।

সম্প্রতি শিক্ষক ময়েন ও ওই কলেজেরই একাদশ প্রথম বর্ষের এক ছাত্রীর অন্তরঙ্গ মুহূর্তের একটি ভিডিওচিত্র বাইরে ছড়িয়ে পড়ে। স্থানীয়সূত্র জানাচ্ছেন, এসএসসি পরীক্ষার আগে ইংরেজির শিক্ষক ময়েন উদ্দিনের কাছে প্রাইভেট পড়তেন ওই ছাত্রী। তাকে প্রেমের ফাঁদে ফেলে তার সঙ্গে দৈহিক সম্পর্ক গড়ে তোলেন ময়েন। ওই ছাত্রীর সঙ্গে অবৈধ মেলামেশার সময় শিক্ষক ময়েন তা মুঠোফোনে ভিডিও করে রাখেন।

এরপর ভিডিওটি তিনি তার ল্যাপটপে সংরক্ষণ করেন। সম্প্রতি চাঁপাইনবাবগঞ্জে তিনি তার ল্যাপটপ সার্ভিসিংয়ে দিলে ভিডিওটি বাইরে ছড়িয়ে পড়ে। এরপর সেটি স্থানীয়দের হাতে হাতে ছড়িয়ে পড়ে। ছড়িয়ে পড়ে ইন্টারনেটেও। এনিয়ে ওই শিক্ষকের বিরুদ্ধে ব্যবস্থা নিতে আন্দোলন শুরু করেন স্থানীয়রা। এরপরই ওই শিক্ষককে সাময়িক বরখাস্ত করা হলো। বরখাস্ত শিক্ষক ময়েন উদ্দিন বালিয়াঘাট্টা গ্রামের আশরাফুল ইসলাম মাস্টারের ছেলে। ভুক্তভোগী ওই ছাত্রীর বাড়িও একই গ্রামে।