‘গুজব ছড়ানো শুধু নিন্দনীয়ই নয়, অপরাধও’

3

শারমীন জোহা শশী। অভিনেত্রী। বাংলাভিশনে প্রচার হচ্ছে তার অভিনীত ধারাবাহিক নাটক ‘জ্ঞানীগঞ্জের পণ্ডিতেরা’। এ নাটক ও অন্যান্য প্রসঙ্গে কথা হলো তার সঙ্গে-

‘জ্ঞানীগঞ্জের পণ্ডিতেরা’ নাটকের গল্পটি কী নিয়ে?

‘জ্ঞানীগঞ্জ’ গ্রামে মধ্যবয়সী তরুণ-তরুণীদের আনাগোনা হয় একটি ডিজিটাল ক্লাবে। ওই গ্রামের কয়েকজন যুবক নিজেদের অনেক জ্ঞানী বলে মনে করেন, সবাই যার যার মতো পাণ্ডিত্য দেখাতে শুরু করেন। এ পাণ্ডিত্যের মধ্যেই ফুটে উঠবে সমাজের নানা চিত্র। এভাবেই এগিয়ে যাচ্ছে নাটকের গল্প। এ ছাড়া এই নাটকে ফেসবুক, ইউটিউব নিয়েও অনেক সামাজিক বার্তা দেওয়া হয়েছে।

এই নাটকে আপনার চরিত্রটি কী রকম?

এখানে আমি অভিনয় করেছি কলেজপড়ূয়া এক তরুণীর চরিত্রে। যে সারাক্ষণ ফেসবুক ব্যবহার করে। তাদের একটি গ্রুপ আছে। যেখানে সে ফেসবুক নিয়ে পাণ্ডিত্য দেখায়।

এখনকার নাটকগুলো নিয়ে দর্শক প্রতিক্রিয়া জানার সুযোগ হয়…

সত্যি বলতে কি, সব নাটক নিয়ে দর্শক প্রতিক্রিয়া জানার সুযোগ হয় না। তবে অনেক নাটক নিয়েই দর্শকরা ফেসবুক ও ইউটিউবে নানা কমেন্ট করেন; যা বেশ ভালো লাগে। এখনকার বেশিরভাগ দর্শক কমেডি নাটক নিয়ে বেশি বলেন। এই নাটকটি প্রচার শুরুর পর থেকে দর্শকের বেশ ভালো সাড়া পাচ্ছি। কারণ, এ নাটকের গল্প সময়োপযোগী।

আর কোন ধারাবাহিকে অভিনয় করছেন?

বর্তমানে শুটিং বন্ধ। জরুরি প্রয়োজন ছাড়া বের হচ্ছি না। এর আগে জাহিদ হাসানের পরিচালনায় ‘হুলস্থুল’, আজাদ আবুল কালামের ‘টুইন ভিলেজ’, বিপ্লব হায়দারের ‘জুলি বিউটিফুল’ নাটকে অভিনয় করেছিলাম। শুনেছি শিগগিরই এগুলো প্রচার হবে।

হোম কোয়ারেন্টাইনে আছেন। সময় কাটছে কী করে?

বই পড়া, সিনেমা দেখা, ফেসবুকে বন্ধুদের সঙ্গে আড্ডাবাজি। এভাবেই… দিনগুলো পার হয়ে যাচ্ছে।

করোনা সচেতনতায় ভক্তদের জন্য কিছু বলবেন?

সবাইকে নিজ নিজ জায়গা থেকে সতর্ক ও সচেতন হতে হবে। কারণ, একটু সচেতনতাই পারে সবাইকে ঝুঁকিমুক্ত রাখতে। জরুরি প্রয়োজন ছাড়া বাড়ির বাইরে কারও যাওয়া উচিত হবে না। মনে রাখতে হবে, আমরা যে কেউ যে কোনো সময় এই রোগে আক্রান্ত হতে পারি। কারণ, সবাই এখন এ রোগের ঝুঁকিতে রয়েছি। তাই প্রয়োজন সচেতনতা ও সতর্কতা। বর্তমানে সামাজিক যোগাযোগমাধ্যমে অনেকেই ছড়াচ্ছেন গুজব; যা অনেকের মধ্যে বিভ্রান্তি ও আতঙ্ক তৈরি করছে। গুজব ছড়ানো শুধু নিন্দনীয়ই নয়, অপরাধও।সমকাল