গণতন্ত্রের জন্য জঙ্গী-আগুনসন্ত্রাসী-যুদ্ধাপরাধীর পার্টনার বর্জন করুন-ইনু

যুগবার্তা ডেস্কঃ জাতীয় সমাজতান্ত্রিক দল-জাসদ সভাপতি ও তথ্যমন্ত্রী হাসানুল হক ইনু এমপি বলেছেন, জাতীয় বীর মোয়াজ্জেম হোসেন একজন চিকিৎসক হলেও নীতিবান-আপোষহীন নেতা ছিলেন। মহান মুক্তিযুদ্ধ, সামরিক শাসন বিরোধী গণতান্ত্রিক আন্দোলন ও পেশাজীবীদের দাবি আদায়ের সংগ্রামে প্রয়াত মোয়াজ্জেম হোসেন ছিল আপোষহীন। তিনি বলেন, গণতন্ত্র-সমাজনীতিকে অর্থবহ করতে জঙ্গীসন্ত্রাসীদের ধ্বংস করার পাশাপাশি জঙ্গী-সন্ত্রাসীদের পার্টনারদেরও বর্জন করতে হবে। তিনি গণতন্ত্রের জন্য জঙ্গী-আগুনসন্ত্রাসী-যুদ্ধাপরাধীর পার্টনার বর্জন করে সমাজকে অপরাধমুক্ত করতে ভূমিকা রাখার আহ্বান জানান। জনাব হাসানুল হক ইনু এমপি আজ মঙ্গলবার সকালে নগরীর শহীদ কর্নেল তাহের মিলনায়তনে জাসদ কেন্দ্রীয় উপদেষ্টা কমিটির সদস্য, বাংলাদেশ লিবারেশন ফ্রন্ট-বিএলএফ এর (মুজিববাহিনী) বীর যোদ্ধা ও স্বনামধন্য শিশু চিকিৎসক জাতীয় বীর প্রফেসর ডা. মোয়াজ্জেম হোসেনের শোক সভায় ভাষনদানকালে এ কথা বলেন।
ঢাকা মহানগর জাসদের সমন্বয়ক মীর হোসাইন আখতারের সভাপতিত্বে অনুষ্ঠিত এ শোক সভায় বক্তব্য রাখেন জাসদ সাধারণ সম্পাদক শিরীন আখতার এমপি, প্রয়াত মোয়াজ্জেম হোসেনের ছেলে ডা. ফাহিম আবরার হোসেন, জাসদ স্থায়ী কমিটির সদস্য ড. আনোয়ার হোসেন, জাসদ কেন্দ্রীয় উপদেষ্টা কমিটির সদস্য ডা. এম এ করিম, ডা. মাহবুবুর রহমান, সার্জেন্ট রফিকুল ইসলাম বীর প্রতীক, শিশু রোগ বিশেষজ্ঞ প্রফেসর ডা. আবু হানিফ টাবলু, জাসদের সহ-সভাপতি এড. হাবিবুর রহমান শওকত, যুগ্ম সাধারণ সম্পাদক আফজাল হোসেন খান জকি, নুরুল আখতার, শওকত রায়হান, ঢাকা মহানগর উত্তর জাসদের সভাপতি শফি উদ্দিন মোল্লা, ঢাকা মহানগর পূর্ব জাসদের সভাপতি শহীদুল ইসলাম, ঢাকা মহানগর পশ্চিম জাসদের সভাপতি মাইনুর রহমান, জাতীয় যুব জোটের সভাপতি রোকনুজ্জামান রোকন ও ভারপ্রাপ্ত সাধারণ সম্পাদক শরিফুল কবির স্বপন, নারী নেত্রী উম্মে হাসান ঝলমল, জাতীয় শ্রমিক জোট-বাংলাদেশ এর সহ-সভাপতি কাজী সিদ্দিকুর রহমান, বাংলাদেশ ছাত্রলীগ কেন্দ্রীয় সংসদের সভাপতি মুহাম্মদ সামছুল ইসলাম সুমন প্রমূখ।