করোনা শনাক্ত পরীক্ষা হচ্ছে না বাংলাদেশসহ বিশ্বের বিভিন্ন দেশে

2

মাজহারুল ইসলাম : আর তাই এ নিয়ে উদ্বেগ প্রকাশ করেছে বিশ্ব স্বাস্থ্য সংস্থা (ডব্লিউএইচও) এবং জনস্বাস্থ্য বিশেষজ্ঞরা। তারা বলছে, করোনা আক্রান্ত হিসেবে কাউকে সন্দেহ হলে, প্রথম কাজই হলো তার পরীক্ষা করানো।

ডব্লিউএইচও’র এ বার্তা বাংলাদেশের জন্য গুরুত্বপূর্ণ। কারণ দেশে গতকাল পর্যন্ত করোনাভাইরাসে ৩৯ জন আক্রান্ত হয়েছেন এ সংখ্যা বাড়ছে। ঘনবসতিতে এখানকার মানুষের জীবনযাপন নিয়ে অনেক বিশেষজ্ঞই বাংলাদেশকে উচ্চ ঝুঁকির দেশ হিসেবে বিবেচনা করছেন।

সংশ্লিষ্ট বিশেষজ্ঞরাও বলছেন, করোনা আক্রান্ত হয়ে কিংবা সন্দেহে নিশ্চিত হতে আইইডিসিআর’এ ভীড় করছেন অনেকে। যাচ্ছেন বিভিন্ন হাসপাতালেও। কিন্তু এদের মধ্যে এক শতাংশেরও পরীক্ষা হচ্ছে না। তাই লক্ষণ থাকার পরও অধিকাংশ মানুষ বঞ্চিত হচ্ছেন করোনা শনাক্ত থেকে। যদিও শুধুমাত্র লক্ষণ থাকলেই করোনা আক্রান্ত বলার সুযোগ নেই। কারণ চীনে করোনাভাইরাসে আক্রান্তদের প্রতি তিনজনের মধ্যে একজন ছিলেন বাহক। করোনা আক্রান্ত হওয়ার লক্ষণ ছিলো না কিংবা দেড়িতে প্রকাশ পাওয়ায় এরই মধ্যে অন্যরা নির্ভয়ে মেলামেশা করায় ভাইরাসটি দ্রুত ছড়িয়েছে।

বিশ্ব স্বাস্থ্য সংস্থার মতে, আক্রান্ত মানুষের ৮১ শতাংশের শরীরে হালকা লক্ষণ দেখা দেয়। যা অন্যান্য ভাইরাল জ্বরের মতো চিকিৎসায় ভালো হয়ে যায়। ১৪ শতাংশের শরীরে মাঝারি লক্ষণ এবং মাত্র ৫ শতাংশ মানুষ গুরুতর অসুস্থ হয়ে পড়েন। যাদের বেশিরভাগ বয়স্ক বা অন্যান্য শারীরিক জটিলতায় ভুগছেন। আর তাই কে বা কার মধ্যে সংক্রমণ ঘটেছে, তা বুঝতে অবশ্যই করোনা শনাক্তে পরীক্ষা করানো দরকার। তা না হলে একজনের মাধ্যমে অন্যদের মধ্যে এ ভাইরাস ছড়িয়ে মহামারী আকার ধারণ করতে পারে।

বঙ্গবন্ধু শেখ মুজিব মেডিকেল বিশ্ববিদ্যালয়ের সাবেক ভিসি প্রফেসর ডা. কামরুল হাসান খান গণমাধ্যমকে বলেন, প্রতিদিনই পরীক্ষা বাড়ানোর কথা বলা হচ্ছে। বিদেশ ফেরত লাখ লাখ মানুষকে পরীক্ষা করালেই সঠিক চিত্রটা উঠে আসবে। তা করতে না পারলে দেশব্যাপি করোনা মহামারী আকারে ছড়িয়ে পড়ার শঙ্কা রয়েছে।

তিনি আরও বলেন, আইইডিসিআর দায়সারাভাবে কাজ করছে। বিশ্ব স্বাস্থ্য সংস্থা বার বার পরীক্ষা বাড়ানোর কথা বললেও এ পর্যন্ত মাত্র ৭৯৪ জন রোগীর পরীক্ষা করা হয়েছে।

বঙ্গবন্ধু শেখ মুজিব মেডিকেল বিশ্ববিদ্যালয়ের আরেকজন সাবেক ভিসি প্রফেসর ডা. নজরুল ইসলাম গণমাধ্যমকে বলেন, করোনার পরীক্ষা কম হয়েছে। পরীক্ষা বাড়ানোর জন্য দেশের অন্যান্য ল্যাবেও করোনার টেষ্ট করা হবে। এ সিদ্ধান্ত শিগগিরই কার্যকর করা হবে।আমাদের সময়.কম