করোনায় পিছিয়ে গেল নতুন শিক্ষাক্রমের বই বিতরণ

6

আগামী বছর থেকে পর্যায়ক্রমে নতুন শিক্ষাক্রমে পাঠ্যবই দেওয়ার কথা ছিল সারাদেশের প্রাথমিক ও মাধ্যমিকের সব শিক্ষার্থীদের। কিন্তু করোনা ভাইরাসের প্রাদুর্ভাবের কারণে তা পিছিয়ে গেল। তবে এক বছর পিছিয়ে ২০২২ সাল থেকে নতুন শিক্ষাক্রমে পাঠ্যবই বিতরণ করা হবে।

মঙ্গলবার রাজধানীর আন্তর্জাতিক মাতৃভাষা ইনস্টিটিউটে শিক্ষামন্ত্রী ডা. দীপু মনির সভাপতিত্বে আয়োজিত এক বৈঠকে এ সিদ্ধান্ত নেওয়া হয়। ২০২১ সালের মধ্যে প্রাক প্রাথমিক থেকে দ্বাদশ শ্রেণী পর্যন্ত নতুন শিক্ষাক্রম চালু করার পূর্ব নির্ধারিত লক্ষ্যমাত্রা নির্ধারণে এই বৈঠক অনুষ্ঠিত হয়।

সভায় উপস্থিত ছিলেন প্রাথমিক ও গণশিক্ষা প্রতিমন্ত্রী মো. জাকির হোসেন, শিক্ষা উপমন্ত্রী মহিবুল হাসান চৌধুরী, শিক্ষা মন্ত্রণালয়ের মাধ্যমিক ও উচ্চ শিক্ষা বিভাগের সচিব মো. মাহবুব হোসেন, কারিগরি ও মাদ্রাসা বিভাগের সচিব মুনশী শাহাবুদ্দীন আহমেদ, প্রাথমিক ও গণশিক্ষা সচিব মো. আকরাম-আল-হোসেন।

বৈঠকে উপস্থিত জাতীয় শিক্ষাক্রম ও পাঠ্যপুস্তক বোর্ডের (এনসিটিবি) চেয়ারম্যান অধ্যাপক নারায়ণ চন্দ্র সাহা বলেন, করোনা পরিস্থিতির কারণে ২০২১ সালে নতুন শিক্ষাক্রমের বই দেওয়া সম্ভব হবে না। নতুন শিক্ষাক্রমের পাঠ্যবই শিক্ষার্থীরা পাবে ২০২২ সাল থেকে। তবে নতুন শিক্ষাক্রমের আলোকে আগামী বছর একটি শিক্ষক নির্দেশিকা শিক্ষকদের দেওয়া হবে। এই নির্দেশিকা পড়ে ২০২২ সালের নতুন শিক্ষাক্রম সম্পর্কে শিক্ষকরা ধারণা পাবেন।সমকাল