এখন আমরা দেখছি নানা বাহিনী: রিজভী

স্টাফ রিপোটার: বিএনপির সিনিয়র যুগ্ম-মহাসচিব অ্যাডভোকেট রুহুল কবির রিজভী বলেছেন, অনেকেই বলে এই আওয়ামী লীগ আর সেই আওয়ামী লীগ নেই। আওয়ামী লীগ কবে ভালো ছিলো? ৭২-৭৫ সালে আমরা দেখেছি লাল বাহিনী, নীল বাহিনী, সবুজ বাহিনী, রক্ষী বাহিনীর কথাও আমরা জানি। এখন আমরা দেখছি নানা বাহিনী- ছাত্রলীগ বাহিনী, যুবলীগ বাহিনী।আজ সোমবার সকালে নয়া পল্টনে বিএনপির কেন্দ্রীয় কার্যালয়ের সামনে এক মানববন্ধনে এসব কথা বলেন তিনি।

ইডেন কলেজে ছাত্রলীগের নজিরবিহীন কেলেংকারি ও সারাদেশে নারী নির্যাতনের প্রতিবাদে এই মানববন্ধন কর্মসূচির আয়োজন করে জাতীয়তাবাদী মহিলা দল।

রিজভী বলেন, আজকে ঢাকা বিশ্ববিদ্যালয়, জাহাঙ্গীরনগর বিশ্ববিদ্যালয় ও ইডেন কলেজে যা হচ্ছে তা অবর্ণনীয় ও ন্যাক্কারজনক। আসলে সরকার ছাত্রলীগকে কী বানাচ্ছেন? তাদেরকে তো খুনি বানাচ্ছেন। এর আগে দর্জি বিশ্বজিতকে হত্যা করেছে। আজকে ছাত্রলীগের নামে ছাত্র আছে। কিন্তু পড়া-লেখা তো নেই।

বিএনপির এই নেতা বলেন, আমাদেরকে অনেকেই বলেন, বিএনপি ইডেনের বিষয়ে কী করছে? আমরা ইডেনে ছাত্রলীগের কুকর্মের প্রতিবাদ ও ধিক্কার জানাই। আজকে এত এত মা-বোনের ইজ্জতের বিনিময়ে অর্জিত আমাদের দেশের স্বাধীনতা আজ কোথায়? আওয়ামী লীগ বিরোধী দলে থাকলেই খালি গণতন্ত্রের কথা বলে।

তিনি বলেন, ইডেনে ছাত্রলীগের কুকীর্তি ন্যাক্কারজনক। আসলে ছাত্রলীগের উপরের দিকে যারা আছেন তারা ভালো না। ফলে ছাত্রলীগ তো নারীদের ওপর আক্রমণ করবেই। তারা শিক্ষার সুষ্ঠু পরিবেশ চাইবে না। তারা ইডেন কলেজকে ছাত্রলীগের হাতে ছেড়ে দিয়েছে। জাহাঙ্গীরনগর বিশ্ববিদ্যালয় ছাত্রলীগের হাতে ছেড়ে দিয়েছে। সেখানে কোনো ভবন নির্মাণ কাজ হলে সেগুলো থেকে চাঁদা দাবি করে। ঢাকা বিশ্ববিদ্যালয় ছাত্রলীগের হাতে ছেড়ে দিয়েছে। তারা সেখানে হলগুলো নিয়ন্ত্রণ করে।

সংগঠনের সভাপতি আফরোজা আব্বাসের সভাপতিত্বে ও সিনিয়র যুগ্ম সাধারণ সম্পাদক হেলেন জেরিন খানের পরিচালনায় মানববন্ধনে বক্তব্য রাখেন বিএনপির স্থায়ী কমিটির সদস্য সেলিমা রহমান প্রমুখ।