একরত্তি কিউবা

21

শান্তনু দেঃ ভেনেজুয়েলা, নিকারাগুয়া, জামাইকা, গ্রেনেদা, সুরিনামের পর এবার লোম্বার্ডি। ডাক্তার, নার্স নিয়ে ৫২ জনের কিউবার ষষ্ঠ মেডিক্যাল ব্রিগেড যাচ্ছে ইতালির লোম্বার্ডিতে,
যেখানে মৃত্যুর সংখ্যা ৩,০০০ ছাড়িয়েছে। কিউবার ইন্টারফেরন আলফা টু-বি ইতিমধ্যেই করোনা আক্রান্ত ১,৫০০ জনকে সুস্থ করেছে।
সমুদ্রে ব্রিটিশ প্রমোদতরী এমএস ব্রেমার। জাহাজে ৫ জন করোনা আক্রান্ত। ৫২ জনের মধ্যে রোগের লক্ষণ। ৬০০ জন যাত্রীর অধিকাংশই ব্রিটিশ। নেই একজনও কিউবান। বিপদে পড়ে মার্কিন যুক্তরাষ্ট্র ও কিউবার কাছে সাহায্য চান জাহাজের ক্যাপ্টেন। কিন্তু ‘প্রাণের বন্ধু’ মার্কিন যুক্তরাষ্ট্র ফিরিয়ে দিলেও, ‘শত্রু’ কিউবা স্বার্থহীনভাবে ব্রিটিশ জাহাজটিকে সাহায্য করার সিদ্ধান্ত নেয়। পাঁচ দিন ধরে ক্যারিবিয়ান সাগরে ছিল জাহাজটি। অন্যত্র নোঙরের অনুমতির জন্য পাগলের মতো হন্যে হয়ে সাহায্য খুঁজছিলেন ক্যাপ্টেন। কেউ অনুমতি দেয়নি। ব্রিটিশ কূটনীতিকরা মার্কিন কর্তাদের কাছে কাকুতিমিনতি করেন। লাভ হয়নি। বিশ্বস্ত মিত্রও ফিরিয়ে দিয়েছে। রাজি হয়নি।
অনুমতি দিয়েছে কিউবা। একরত্তি কিউবা। সমাজতান্ত্রিক কিউবা। আর তার সর্বহারার আন্তর্জাতিকতাবাদ।-শান্তনু দে কলামিস্ট ও সিনিয়র সাংবাদিক দৈনিক গণশক্তি, কোলকাতা।