একজন সবচেয়ে খাটো একজন সবচেয়ে লম্বা

আন্তর্জাতিক ডেস্ক:

বিশ্বের সবেচেয়ে খাটো নারীর দেখা হলো বিশ্বের সবচেয়ে লম্বা পুরুষের সঙ্গে। গেল শুক্রবার মিশরে তাদের দেখা হয়েছে।

বিশ্বের সবেচেয়ে খাটো নারী জ্যোতি আমগের উচ্চতা মাত্র দশমিক ৬৩ মিটার। গিনেজ ওয়ার্ল্ড রেকর্ড অনুযায়ী তিনিই বিশ্বের সবচেয়ে খাটো জীবিত নারী। জ্যোতি ভারতের বাসিন্দা।

শুক্রবার ২৫ বছর বয়সী এই নারীর দেখা হয় বিশ্বের সবচেয়ে লম্বা জীবিত পুরুষের সঙ্গে। আর তিনি হলেন তুরস্কের সুলতান কোসেন। নীল নদের তীরে মিশরের গিজা শহরে তাদের দেখা হয়। তাদের দেখা হওয়ার খবরটি আন্তর্জাতিক গণমাধ্যমগুলোতে ফলাও করে প্রকাশিত হচ্ছে।

সুলতান কোসেনের বয়স ৩৬ বছর, উচ্চতা ২ দশমিক ৫১ মিটার। অর্থাৎ জ্যোতির যে প্রায় চার গুন বেশি লম্বা সুলতান।

গিনেজ কর্তৃপক্ষের হিসেবে গেল ২০ বছরে সুলতানই প্রথম মানুষ যার উচ্চতা ৮ ফিটের বেশি। ২০০৯ সাল থেকে এ অবস্থান ধরে রেখেছেন তিনি।

মস্তিষ্ক থেকে গ্রোথ হরমোনের অস্বাভাবিক নিঃসরণই সুলতানের এ উচ্চতার কারণ।

সুলতানের চার ভাই-বোন রয়েছে। তাদের প্রত্যেকের উচ্চতা স্বাভাবিক। ২০১৩ সালে বিয়ে করেছেন সুলতান।

একটি ফটোশুটের জন্য সুলতান ও জ্যোতিকে শুক্রবার মিশরের গিজায় আনা হয়। সেখানেই দেখা হয় তাদের।