উজিরপুরে ইরি ব্লকে বাধাঁ,১ লক্ষ টাকা চাঁদা দাবী নির্বাহী অফিসারসহ বিভিন্ন দপ্তরে অভিযোগ

উজিরপুর প্রতিনিধি: বরিশালের উজিরপুরের পশ্চিম জয়শ্রী গ্রামে ইরি ব্লক পানি সেচে বাধা প্রদান করে ব্লক ম্যানেজারের কাঝে ১লক্ষ টাকা চাঁদা দাবী করেছে প্রভাবশালীরা বলে অভিযোগ পাওয়া গেছে। এ ব্যাপারে ১৯ জানুয়ারী উজিরপুর উপজেলা নির্বাহী অফিসার, উপজেলা কৃষি কর্মকর্তা, উজিরপুর মডেল থানা অফিসার ইনচার্জ, গৌরনদী উপজেলার উপ-সহকারী প্রকৌশলী(বিএডিসি), ক্ষুদ্র সেচ স্কিম এর বরাবর লিখিত অভিযোগ দায়ের করেছেন পশ্চিম জয়শ্রী এলাকার সেচ স্কিম প্রকল্পের(ম্যানেজার) মোঃ সেলিম সরদার। অভিযোগ ও ভূক্তভোগী সূত্রে জানা যায়, ৮৩ নং জয়শ্রী মৌজা ও ৮৫ নং মুন্ডপাশা মৌজায় প্রায় ২৫০ একর কৃষি জমি ইরি/বোরো চাষের জন্য পানি সরবরাহ করে দীর্ঘদিন সুনামের সাথে ব্লক ম্যানেজার হিসাবে সুপরিচিত হয়ে সেলিম সরদার ইরি ব্লক চালাচ্ছেন। এরই মধ্যে ১১ জানুয়ারী সকাল ৭টায় ড্রেন কাটার সময় আকস্মিকভাবে একই এলাকার সাদ্দাম খলিফা, জাকির হোসেন হাওলাদার, নুরুল আমিন কানন, আঃ মোতালেব খান, ইমরান খান, আলমগীর খান, গফ্ফার হাওলাদার, মন্টু ওরফে বনি আমিন হাওলাদার, সজল ওরফে রায়হান হাওলাদার, মোয়াজ্জেম হোসেন সরদার, নুরুল ইসলাম হাওলাদার, দেলোয়ার হাওলাদার মিলে কিছু স-সস্ত্র সন্ত্রাসীদের নিয়ে ড্রেন কাটার কার্যক্রমে বাধা প্রদান করে এবং যুবকদের এ বছর ১ লক্ষ টাকা চাঁদা দিতে হবে বলে হুমকি দেয়। দাবীকৃত চাঁদার টাকা দিতে অস্বীকৃতি জানালে ইরি ব্লকের ড্রেন কাটার কার্যক্রম বন্ধ করে দেয় এবং লেবারদের অশ্লীল ভাষায় গালিগালাজসহ শারীরিক নির্যাতন, বিভিন্ন ভয়ভীতি ও হুমকি দেয়ার অভিযোগ পাওয়া গেছে। এই কারণে নির্ধারিত সময়ে ইরি/বোরো ব্লকে পানি সরবরাহ সম্ভব হচ্ছে না। এমনকি বীজধান রোপনের উপযোগী হওয়ায় চাষীরা সময়মত রোপন করতে পারছে না। এরফলে সাধারণ কৃষক আর্থিকভাবে ক্ষতিগ্রস্থ ও হয়রানির শিকার হচ্ছে। প্রভাবশালীদের কবল থেকে ইরি ব্লক রক্ষা করার জন্য প্রশাসনের সুদৃষ্টি কামনা করেছেন সাধারণ কৃষকরা।