আমাদের লড়াই হচ্ছে পৃথিবীর ইতিহাসে শ্রেষ্ঠ জাতি গঠনের লড়াই–মোস্তাফা জব্বার

4

যুগবার্তা ডেস্কঃ ডাক ও টেলিযোগাযোগ মন্ত্রী জনাব মোস্তাফা জব্বার বলেছেন, ডিজিটাল শিল্প বিপ্লবের চ্যালেঞ্জ মোকাবেলায় দেশের প্রতিটি শিক্ষার্থীকে উপযোগী শক্তি হিসেবে তৈরি হতে হবে। শিক্ষার্থীদের কেবল মাত্র পাঠ্য পুস্তকের শিক্ষায় সীমাবদ্ধ থাকলে চলবে না। বর্তমান সভ্যতার জ্ঞানভান্ডার ইন্টারনেট থেকে জ্ঞান আহরণ করতে হবে। ডিজিটাল পৃথিবীতে সবচেয়ে বড় সম্পদের নাম হচ্ছে মেধা। আমাদের এখনকার লড়াই পৃথিবীর ইতিহাসে শ্রেষ্ঠ জাতি গঠনের লড়াই। এই লক্ষ্যে বিস্তারিত কর্মসূচি গ্রহণ ও বাস্তবায়িত হচ্ছে বলে তিনি উল্লেখ করেন।

মন্ত্রী আজ ঢাকায় মহাখালীতে টিএন্ডটি মহিলা কলেজের একাদশ ও অনার্স প্রথম বর্ষের নবাগত ছাত্র-ছাত্রীদের বরণ এবং কলেজের নতুন অডিটরিয়াম উদ্বোধন উপলক্ষে আয়োজিত অনুষ্ঠানে প্রধান অতিথির বক্তৃতায় এসব কথা বলেন।

ডাক ও টেলিযোগাযোগ সচিব অশোক কুমার বিশ্বাস এর সভাপতিত্বে অনুষ্ঠানে আকবর হোসেন পাঠান (ফারুক) এমপি, কলেজের অধ্যক্ষ মহসীন হোসেন, স্থানীয় কাউন্সিলর মো: নাসির উদ্দিন এবং কলেজ পরিচালনা পরিষদের সদস্য প্রকৌশলী আবু তালেব বক্তৃতা করেন।

ডাক ও টেলিযোগাযোগ মন্ত্রী নারী শিক্ষা বিস্তারে প্রধান মন্ত্রী শেখ হাসিনা গৃহীত বিভিন্ন কর্মসূচি তুলে ধরে বলেন, নারীর ক্ষমতায়নে সরকারের যুগান্তকারি বিভিন্ন কর্মসূচির সফল বাস্তবায়নে বাংলাদেশ আজ পৃথিবীর রোল মডেল। দেশের মোট শিক্ষার্থীর শতকরা ৫৩ ভাগ নারী। মন্ত্রী ২০৪১ সালের মধ্যে মেধাভিত্তিক সমাজ প্রতিষ্ঠার মাধ্যমে উন্নত বাংলাদেশ বিনির্মাণে প্রধানমন্ত্রী শেখ হাসিনার ভিশন বাস্তবায়ন বেগবান করতে প্রচলিত শিক্ষা ব্যবস্থার পরিবর্তে প্রাথমিক স্তর থেকে ডিজিটাল শিক্ষা ব্যবস্থা প্রবর্তণের প্রয়োজনীয়তার ওপর গুরুত্বারোপ করেন।

মন্ত্রী টিএন্ডটি মহিলা কলেজকে ২০১৯ সালের মধ্যে ডিজিটাল কলেজ প্রতিষ্ঠা করার সর্বাতœক উদ্যোগ গ্রহণের আশ্বাস ব্যক্ত করেন।অনুষ্ঠানে টেলিযোগাযোগ মন্ত্রী টিএন্ডটি মহিলা কলেজকে ফ্রি ওয়াই ফাই জোন প্রতিষ্ঠার ঘোষণা দেন।

মন্ত্রী কলেজের অডিটরিয়াম ভবন উদ্বোধন করেন এবং টিএন্ডটি বালিকা উচ্চ বিদ্যালয় পরিদর্শন করেন।
স্থানীয় সংসদ সদস্য আকবর হোসেন পাঠান এবং ডাক ও টেলিযোগাযোগ বিভাগের সচিব অশোক কুমার বিশ্বাস এ সময় উপস্থিত ছিলেন।