আইপিডিসি ফাইন্যান্স চালু করলো কার্ডবিহীন ইএমআই সুবিধা ‘আইপিডিসি ইজি’

স্টাফ রিপোটার: আইপিডিসি ফাইন্যান্স লিমিটেড সীমিত আকারে শুরু করলো হোম অ্যাপ্লায়েন্স ও ইলেক্ট্রনিক ডিভাইসের বাজারে বাংলাদেশের প্রথম কার্ডবিহীন ০% হারে ইএমআই সুবিধা ‘আইপিডিসি ইজি’। সর্বোচ্চ ২00,000 টাকা সমমূল্যের পণ্য ক্রয়ের ক্ষেত্রে চাকরিজীবীরা এই সেবা উপভোগ করতে পারবেন র‌্যাংগস-এর নির্ধারিত কিছু আউটলেটে।

আইপিডিসি ফাইন্যান্স লিমিটেডের ব্যবস্থাপনা পরিচালক ও সিইও মমিনুল ইসলাম এবং র‌্যাংগস ইন্ডাস্ট্রিজ লিমিটেডের নির্বাহী পরিচালক কাজী আশিক উর রহমান গুলশান ২-এ অবস্থিত র‌্যাংগস ই-মার্ট আউটলেটে ‘আইপিডিসি ইজি’-এর বিটুবি অ্যাপ্লিকেশন উদ্বোধন করেন। উদ্বোধনী অনুষ্ঠানে অন্যান্যদের মধ্যে আরও উপস্থিত ছিলেন আইপিডিসি ফাইন্যান্স-এর অ্যাডিশনাল ম্যানেজিং ডিরেক্টর রিজওয়ান দাউদ শামস, হেড অব রিটেইল বিজনেস সাভরিনা আরিফিন, হেড অব প্রোডাক্টস অ্যান্ড মার্কেটিং ইশতিয়াক শাহরিয়ার, এবং র‌্যাংগস ইন্ডাস্ট্রিজ লিমিটেড-এর জিএম, সেলস অ্যান্ড সার্ভিস, সামির মুহাম্মদ সালেহ; হেড অফ ফাইন্যান্স সালেহ আহমেদ এবং এজিএম, ব্র্যান্ড-প্রোডাক্ট গোলাম আজম খান।

এ সময় নতুন এই সেবা সম্পর্কে বক্তব্য দিতে গিয়ে মমিনুল ইসলাম বলেন, “আমরা সবসময়ই গ্রাহকদের জন্য সেরা সেবা নিশ্চিত করতে উদ্ভাবনকে বিশেষ প্রাধান্য দিয়েছি। আইপিডিসি ইজি এরকমই আরেক উদ্ভাবন যা বাংলাদেশের ভোক্তাদের জীবনমান উন্নয়নে এক নতুন দিগন্তের উন্মোচন করবে বলে আমরা বিশ্বাস করি। আর আইপিডিসি ইজি-কে সাফল্য এনে দিতে র‍্যাংস-এর মত স্বনামধন্য প্রতিষ্ঠানকে পাশে পেয়ে আমরা আরও অনুপ্রাণিত বোধ করছি।”

আইপিডিসি ইজি সম্পূর্ণরূপে একটি অ্যাপ-ভিত্তিক ডিজিটাল প্ল্যাটফর্মে গ্রাহকদের জন্য সহজ, দ্রুত এবং সাশ্রয়ী মূল্যের সেবা এবং পণ্য ডেলিভারি নিশ্চিত করে। ন্যূনতম ২০,০০০ টাকা মাসিক আয়ের চাকরিজীবীরা সর্বোচ্চ ১৮ মাস মেয়াদী ইজি ক্রেডিট সীমা পেতে আবেদন করতে পারেন। আইপিডিসি ফাইন্যান্স এই এন্ড-টু-এন্ড ডিজিটাল প্ল্যাটফর্মে ন্যূনতম ম্যানুয়াল হস্তক্ষেপে মাত্র তিন কার্যদিবসের মধ্যে ক্রেডিটসীমা অনুমোদন করতে পারে।

আইপিডিসি ইজি-র মাধ্যমে গ্রাহকরা তিন শতাধিক আউটলেট এবং বিভিন্ন ই-কমার্স প্ল্যাটফর্ম থেকে টিভি, স্মার্টফোন, রেফ্রিজারেটর, এয়ার কন্ডিশনার, ওয়াশিং মেশিন, মাইক্রোওয়েভ ওভেন, ওয়াটার পিউরিফায়ার, ট্রাভেল প্যাকেজসহ বিভিন্ন প্রকার পণ্য ও সেবা তাৎক্ষণিকভাবে ক্রয় করতে পারবেন এবং পরবর্তীতে নিজস্ব সুবিধামতো পেমেন্ট শিডিউল অনুযায়ী মাসিক কিস্তি প্রদান করতে পারবেন।