আইনের যথাযথ প্রয়োগের অভাবেই দুর্নীতি, অবিচার বেড়ে চলছে–রেজাউল

46

চট্টগ্রাম অফিস :জাতীয় পার্টির অতিরিক্ত মহাসচিব অ্যাডভোকেট রেজাউল ইসলাম ভূইয়া বলেছেন, আইন প্রণয়ন করেই ধর্ষণ, সন্ত্রাস ও দুর্নীতি রোধ করা যাচ্ছে না। কারণ হচ্ছে আইনের প্রয়োগ নেই। যার কারণে দুর্নীতি, অবিচার বেড়েই চলেছে।

আজ রবিবার বিকেলে পটিয়া কমিউনিটি সেন্টারে
চট্টগ্রাম দক্ষিন জেলা জাতীয় পার্টির সাংগঠনিক সভায় প্রধান অতিথির বক্তব্যে তিনি এসব কথা বলেন।

রেজাউল বলেন, বর্তমানে আইন প্রয়োগের ক্ষেত্রে রাজনৈতিক বিবেচনা চলছে যা গণতন্ত্র ও দেশের জন্য অশনিসংকেত। এ অবস্থা নব্বইয়ের পর থেকেই বিদ্যমান। অপরাধী যেই হোক তাকে আইনের আওতায় আনতে হবে। কিন্তু আমাদের দেশে দেখা যায় অপরাধীকে সাময়িকভাবে আইনের আওতায় আনা হলেও পরে ক্ষমতাসীনদের তদবিরে পার পেয়ে যায়।

তিনি বলেন, মানুষ আজ সর্বক্ষেত্রে অশান্তির মাঝে রয়েছে। দ্রব্যমুল্যের উর্ধ্বগতি, জানমাল আজ নিরাপত্তাহীন। বেড়েছে ধনি-গরীবের বৈষম্য। ধনীরা আরো ধনী হচ্ছে আর গরীবরা দারিদ্র্যের নিম্ন সীমায় চলে যাচ্ছে। সব জায়গায় চলছে দলীয়করণ। জনগণ এ অবস্থা থেকে পরিত্রাণ চায়। আর জাতীয় পার্টিই পারে এ পরিত্রাণ দিতে। এজন্য পার্টিকে শক্তি আরো শক্তিশালী করার জন্য তৃণমূল পর্যায়ে সংগঠনকে সুসংগঠিত করার জন্য আমরা কাজ করে যাচ্ছি।

জাপা ভাইস-চেয়ারম্যান ও চট্টগ্রাম দক্ষিণ জেলার আহবায়ক সামশুল আলম মাস্টারের সভাপতিত্বে সভায় বিশেষ অতিথি হিসেবে বক্তব্য রাখেন পার্টির প্রেসিডিয়াম সদস্য ও জাতীয় যুব সংহতির সভাপতি আলমগীর সিকদার লোটন, প্রেসিডিয়াম সদস্য ও জাতীয় মহিলা পার্টির সাধারণ সম্পাদক নাজমা আকতার এমপি, প্রেসিডিয়াম সদস্য এমরান হোসেন মিয়া, কেন্দ্রীয় ভাইস চেয়ারম্যান দিদারুল কবির, সাবেক এমপি মৌলভী ইলিয়াস, লুৎফর রেজা খোকন, যুগ্ম মহাসচিব বেলাল হোসেন, সাংগঠনিক সম্পাদক আ জ ম মোঃ অলিউল্লাহ চৌধুরী মাসুদ, চট্টগ্রাম মহানগর জাতীয় পার্টির সাবেক সাধারণ সম্পাদক শ্রী তপন চক্রবর্তী, আমানুল্লাহ আমান, নাসিরুদ্দিন সিদ্দিকী, ছাত্রসমাজের কেন্দ্রীয় নেতা গাজী মো. আকতার হোসেনসহ জেলা জাতীয় পার্টির নেতৃবৃন্দ।